SCORE

সর্বশেষ

এবার দাতব্য কাজে মন দিলেন রশিদ খান

ক্রিকেটার সত্তাই তার আসল পরিচয়। এবার অবশ্য আফগান ক্রিকেটার রশিদ খান মনোযোগ দিয়েছেন নতুন আরেকটি কাজে। সুবিধাবঞ্চিত এতিম শিশুদের সহায়তায় একটি দাতব্য সংস্থা চালু করতে যাচ্ছেন তিনি।

এবার দাতব্য কাজে মন দিলেন রশিদ খান

রশিদ খানের নিজস্ব ফাউন্ডেশনে শুরু হতে যাওয়া দাতব্য সংস্থাটির নাম ‘রশিদ খান চ্যারিটি অর্গানাইজেশন’। এতিম শিশুদের শিক্ষাদান, খাদ্য সরবরাহ ও চিকিৎসার নিশ্চিতকরণই সংস্থাটির প্রধান লক্ষ্য।

Also Read - ইমরানের আমন্ত্রণ ফিরিয়ে দিলেন গাভাস্কার

আপাতত ৫০০ জন এটি শিশুকে নিয়ে কাজ শুরু করবে বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা বোলারের হাতে গড়া এই সংগঠন। তাদেরকে স্কুলে পাঠানোর ব্যবস্থা করা, শিক্ষালাভে সব ধরণের সহায়তা করা, বিশুদ্ধ খাবার পানির ব্যবস্থা করা ও স্বাস্থ্য-চিকিৎসা সেবা প্রদানই সংগঠনের প্রথম কাজ।

দাতব্য সংস্থাটির যাত্রা শুরু প্রসঙ্গে জানিয়েছেন রশিদ খান নিজেই। নিজের ফেসবুক পেইজে এ প্রসঙ্গে দেওয়া একটি পোস্টে তিনি উল্লেখ করেন-

সম্মানিত আফগান জনগণ, আপনাদের দোয়া ও শুভকামনায় আমি আমার প্রিয় দেশ এবং এই দেশের মানুষদের জন্য আরেকটি ভালো পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিরশিদ খান চ্যারিটি অর্গানাইজেশন নামে একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠান খুলেছি।’

আফগানিস্তানের হয়ে ক্রিকেট খেলে নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। একইভাবে দেশকেও নতুন করে বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরতে পেরেছেন। রশিদ খান মনে করেন, দেশকে প্রতিদান হিসেবে কিছু দেওয়ার মোক্ষম উপায় তার গড়া এই দাতব্য সংস্থা, ‘আমি রশিদ খান ফাউন্ডেশনের কাজ শুরু করেছি এতিম, দরিদ্র ও অসহায়দের সাহায্য করতে। এখন প্রতিদান দেওয়ার সময়, তবে অবশ্যই আপনাদের দোয়া ও সহযোগিতা দরকার।’

যুদ্ধবিধস্ত দেশটির সুবিধাবঞ্চিত মানুষের সহায়তায় কোনো ক্রিকেটারের এগিয়ে আসা এবারই প্রথম নয়। এর আগে আরেক আফগান ক্রিকেটার করিম সাদিকও একটি দাতব্য সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেন। আফগানিস্তানের হয়ে ক্রিকেট খেলে প্রতিষ্ঠিত হওয়া ক্রিকেটাররা এগিয়ে এলে ভবিষ্যতে দুঃখ-দুর্দশা থেকে মুক্তি পেতে পারেন দেশটির সংগ্রামী মানুষেরা।

আরও পড়ুন: ব্র্যাথওয়েটের অলরাউন্ড নৈপূণ্যে সেন্ট কিটসের বড় জয়

Related Articles

আসগর স্টানিকজাই থেকে আসগর আফগান

ক্রিকেটের ৯০ শতাংশ দর্শকই উপমহাদেশের!

স্ট্রাইকিং প্রান্তে শুরু করতেই ভালোবাসেন তামিম

“খেলায় আপস অ্যান্ড ডাউনস থাকবেই”

আলোচিত ব্যাঙ্গালোর টেস্টে যত রেকর্ড