Scores

এবার পুরো অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ অশ্বিনের

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ইতিহাস গড়ে দেশে ফিরেছে ভারত। ২-১ ব্যবধানে জেতা এই সিরিজ অবশ্য মাঠের বাইরের নানা কারণেও থেকেছে আলোচনায়। এর মধ্যে অন্যতম ছিল বর্ণবাদ ইস্যু। মোহাম্মদ সিরাজ, জাসপ্রিত বুমরাহদের সাথে অস্ট্রেলীয় দর্শকদের বর্ণবাদী আচরণ ছড়িয়েছে উত্তাপ। এবার গোটা অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে বর্ণবাদের অভিযোগ তুলেছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। 

এবার পুরো অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ অশ্বিনের

অশ্বিনের দাবি, লিফটে অজি ক্রিকেটাররা থাকলে ভারতীয় ক্রিকেটার বা দলের কেউ সেই লিফটে উঠতে পারতেন না। সিরিজের জন্য পুরো দলই ছিল বায়োবাবলে। খেলার মাঠে একসাথেই থেকেছেন দুই দলের ক্রিকেটাররা। কখনো করেছেন করমর্দন, আলিঙ্গন। তাহলে লিফট ব্যবহারের ক্ষেত্রে কেন ভারতীয় দলকে কড়া কথা শোনানো হয়েছিল, তার কোনো যৌক্তিকতা খুঁজে পাচ্ছেন না এই অলরাউন্ডার।

Also Read - মাঝরাতে উঠে দেখতাম আজমল আমাকে বল করছে : ডু প্লেসিস


অশ্বিন বলেন, ‘সিডনি যাওয়ার পর আমাদের কঠিন সব নিষেধাজ্ঞা জানানো হয়। আমাদের মূলত বন্দী করে ফেলা হয়। খুব অবাক করার মত অভিজ্ঞতাও হয়েছিল। অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা লিফটের ভেতরে থাকলে আমাদের প্রবেশ করতে দেওয়া হত না। এটা খুব অবাক করার মত। দুই দলই তো একই বায়োবাবলে ছিল। আমাদের খুব বিস্মিত করেছিল এমন নিষেধাজ্ঞা।’

অশ্বিন তার হতাশার কথায় যেন ফুটিয়ে তুললেন পুরো দলের অভিব্যক্তি। তিনি জানান, ‘এমন কিছু ঘটবে আমরা কল্পনাও করিনি। সত্যি আমাদের অনেক খারাপ লেগেছিল। ব্যাপারটি মেনে নেওয়ার মত ছিল না। একইসাথে আছি, অথচ আমরা একসাথে লিফট ব্যবহার করতে পারব না?’

সিরিজের প্রথম টেস্টে দারুণ জয় পেয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। রাজসিক এই জয়ের পরও দ্বিতীয় টেস্টে ভারতীয়দের সাথে এত কড়াকড়ি আচরণ করা হয়নি। অশ্বিন মনে করেন, দ্বিতীয় টেস্টে ভারত জেতার পরপরই অজিরা কঠোর হয়ে উঠে।

তিনি বলেন, ‘সিরিজ ১-১ হতেই সবকিছু বদলে যায়। আমাদের বলে দেওয়া হয়- হোটেল কক্ষ থেকে বের হওয়া যাবে না। এতদিন ধরে হোটেলে যাওয়া সম্ভব? আমি পরিবার নিয়ে গিয়েছিলাম। বাচ্চারা বাইরে বের হতে চাইত। সময়টা খুব কঠিন ছিল।’ 

Related Articles

বল টেম্পারিং কাণ্ডে আবারও প্রশ্নের মুখে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটাররা

অবশেষে দেশে ফিরলেন স্মিথ-ওয়ার্নার-পন্টিংরা

ভ্যাকসিন নিয়ে বাংলাদেশে আসছে অজিরা

কেপটাউনের সেই বল টেম্পারিং নিয়ে বিস্ফোরক দাবি ব্যানক্রফটের

স্মিথের হাতে নেতৃত্ব তুলে দিতে চান পেইন