এবার বিপিএলে থাকছে না কোনো আইকন ক্রিকেটার

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থ আসর শুরু হবে ৪ নভেম্বর থেকে। তবে এবারের আসরে কিছু পরিবর্তন থাকছে। প্রথম তিন আসরেই ছিলো ‘আইকন’ শ্রেণির খেলোয়াড়। তবে এবারের আসরে কোনো ‘আইকন’ শ্রেণির খেলোয়াড় থাকছে না। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) এমনটিই জানিয়েছেন।

5 cricketers

Advertisment

বিপিলের প্রথম আসর থেকেই ছিলো প্রতিটি দলের একজন করে ‘আইকন’ খেলোয়াড়। গত বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের আইকন ছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, রংপুর রাইডার্সের সাকিব আল হাসান, চিটাগং ভাইকিংসের তামিম ইকবাল, বরিশাল বুলসের মাহমুদউল্লাহ, সিলেট সুপারস্টারসের মুশফিকুর রহিম ও ঢাকা ডায়নামাইটসের নাসির হোসেন। তবে এবার এমনটি হচ্ছে না। দেশের সব শীর্ষ সারির ক্রিকেটারদের এবার রাখা হবে ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরিতে। ৩০ সেপ্টেম্বর হতে যাওয়া খেলোয়াড় ড্রাফটে সর্বোচ্চ শ্রেণি হবে এই ‘এ প্লাস’।

হঠাত করে আইকন খেলোয়াড় থেকে সরে আসার কারণ জানান জালাল ইউনুস। তিনি বলেন, “সাতটা আইকন আসলে পাওয়া যায় না। সর্বোচ্চ পাঁচটা পাওয়া যায়। আইকন-পদ্ধতি চালু হয়েছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক দলগুলোকে জনপ্রিয় করার জন্য। আইপিএলে শচীন টেন্ডুলকার, সৌরভ গাঙ্গুলী, রাহুল দ্রাবিড়দের দিয়ে আইকন-পদ্ধতি শুরু। আমরা এই ধারণা থেকে সরে আসতে চাচ্ছি। শীর্ষস্থানীয় খেলোয়াড়েরা থাকবে ‘এ’ প্লাস শ্রেণিতে।”  

তবে আগের আসরের নিজের দলের খেলোয়াড় ধরে রাখার সুযোগ পাচ্ছে এবার ফ্রাঞ্চাইজিগুলো। সর্বোচ্চ শ্রেণি বাদ দিয়ে অন্য শ্রেণি থেকে দুইজন খেলোয়াড় ধরে রাখতে পারবে দলগুলো। আগের আসরে দেশী আইকন ক্রিকেটারদের থেকে বিদেশী ক্রিকেটাররা অনেক বেশি পারিশ্রমিক পেয়েছেন। তবে এবারের আসরে দেশি ও বিদেশি খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিকের ব্যবধান কমিয়ে আনার পরিকল্পনা করছে বিসিবি।

উল্লেখ্য, বিপিএলের এবারের আসরে থাকছে সাতটি দল। আগের আসরে না থাকা খুলনা ও রাজশাহীর দল থাকছে এবার তবে থাকছে না সিলেটের কোনো দল। ৪ নভেম্বর শুরু হয়ে ডাবল লিগ পদ্ধতিতে চলবে এই টুর্নামেন্ট। ডিসেম্বরের ৭ বা ৮ তারিখ বিপিএল সমাপ্ত হবার কথা রয়েছে।