Scores

এমন ম্যাচে কালিমা লাগানোর চেষ্টা করলে সেটি ভুল: বুলবুল

১৯৯৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছে পাকিস্তানের হেরে বসা ম্যাচটি নিয়ে পাকিস্তানে কম বিতর্ক নেই। ঐ ম্যাচে পাকিস্তান ইচ্ছা করে হেরে বসেছিলো- এমন অভিযোগ করে থাকেন দেশটির অনেকেই। সম্প্রতি এমন দাবি করে আলোচনায় এসেছেন তৎকালীন পিসিবি সভাপতি খালিদ মেহমুদ।

এমন ম্যাচে কালিমা লাগানোর চেষ্টা করলে সেটি ভুল বুলবুল

তবে এমন সন্দেহ মেনে নিতে পারছেন না বাংলাদেশের ক্রিকেট অঙ্গনের মানুষজন। অভিযোগটি অবশ্য নতুন নয়। অনেক আগে থেকেই এই ম্যাচকে কেন্দ্র করে পাকিস্তানের ক্রিকেটে বিতর্কের জন্ম। আর তারই সূত্র ধরে সম্প্রতি প্রকাশিত একটি বইয়ে সাবেক টাইগার দলপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল হতাশা প্রকাশ করেছেন।

ক্রীড়া সাংবাদিক রানা আব্বাসের লেখা ক্রিকেট বিষয়ক বই ‘বাংলাদেশের অধিনায়ক’ এ তার বক্তব্যে উঠে আসে ঐ ম্যাচের প্রসঙ্গ। ম্যাচ নিয়ে পাকিস্তানের অহেতুক বিতর্কের কথাও এতে উঠে আসে।

Also Read - শেখ হাসিনা স্টেডিয়ামের ডামি নকশা প্রকাশ


এ প্রসঙ্গে বুলবুল জানান, আমি অধিনায়ক ছিলাম, পুরো ম্যাচের প্রতিটি বলের সঙ্গে জড়িয়ে ছিলামহলফ করে বলতে পারি ম্যাচে খারাপ কিছু দেখিনিযেটা কেউ কেউ বলার চেষ্টা করে।’

পাকিস্তান যে ঐ ম্যাচ ইচ্ছা করে হারেনি, হেরেছিল বাংলাদেশের নৈপুণ্যেই- সেই প্রমাণও দিয়েছেন বুলবুল। ম্যাচ হারতে বসা পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা সেদিন হতবিহ্বল হয়ে পড়েছিলেন। ফলে মাঠেই হারাচ্ছিলেন মেজাজ।

বুলবুল জানান, ‘ওই ম্যাচে রাহুলের (নিয়ামুর রশীদ) সঙ্গে ওয়াসিম আকরাম, বাবুর (শফিউদ্দিন আহমেদ) সঙ্গে ইনজামাম-উল-হকের প্রায় হাতাহাতি হয়ে যাচ্ছিল। আমাকে গিয়ে এসব থামাতে হয়েছে।’

এমন ম্যাচ নিয়ে অভিযোগ তুললে খারাপ লাগে জানিয়ে তিনি বলেন, এ রকম একটা ম্যাচ, কেউ যদি কালিমা লাগানোর চেষ্টা করে, এটা ভুলএ ম্যাচটা নিয়ে অনেকের কাছে আমাকে উত্তর দিতে হয়েছেখুব খারাপ লাগলেও ওই জয় নিয়ে আমি গর্ববোধ করি সব সময়ইএই বিশ্বাসটা এসেছিল, বড় দলকে আমরা হারাতে পারি।’

আরও পড়ুন: নিরানব্বইয়ের বিশ্বকাপে বাংলাদেশের জয়কে ‘সন্দেহজনক’ দাবি!

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বাংলাদেশের সঙ্গে ৯৬’র শ্রীলঙ্কার মিল খুঁজে পান আমিনুল

বুলবুলের বিশ্বকাপ দলে ইমরুল-তাইজুল, নেই সৌম্য

বুলবুল-পুত্রের বিশ্বজয়

‘পুরো বিষয়টা হ-য-ব-র-ল’

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের শীর্ষ দশ রান সংগ্রাহক