এশিয়া কাপের ইতিহাসে বাংলাদেশের সেরা পাঁচ

১৯৮৪ সাল থেকে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণের আসর এশিয়া কাপ শুরুর দু’বছর পর থেকে প্রতিযোগিতাটিতে পথচলা শুরু হয় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এরপর টানা ১৩ আসর ধরে প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ। এখনো অবধি প্রতিযোগিতার ১২ আসরের মধ্যে এগারোবার একদিনের ফরম্যাট অর্থাৎ ৫০ ওভারের লড়াইয়ে ও একবার টি-টোয়েন্টি অর্থাৎ ২০ ওভারের প্রতিযোগিতায় লড়েছে দলটি।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের পরিসংখ্যান:
১৯৮৪ সাল থেকে এখনো অবধি ১২ আসরের মধ্যে ১১বার ওয়ানডে ফরম্যাটে অনুষ্ঠেয় এশিয়া কাপে মোট ৩৭টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে ৪টি ম্যাচে জয় পাওয়ার বিপরীতে মোট ৩৩টি ওয়ানডেতে পরাজয়ের মুখ দেখেছে দলটি। আর টি-টোয়েন্টির একমাত্র আসরে ৫ ম্যাচ খেলে দলটির জয় পাওয়ার সংখ্যা ৩।

তবে সময় অতিক্রমের সাথে বদলে গেছে বাংলাদেশ দলের প্রেক্ষাপটও। এখনকার টাইগারবাহিনী আগের চেয়ে আরও ভয়ঙ্কর ও শক্তিশালী। একই সাথে দলটির রয়েছে সব দলের বিপক্ষে জয় পাওয়ার ক্ষমতাও। তাই বাংলাদেশকে ঘিরে সবার প্রত্যাশাটাও আগের চেয়ে ঢের বেশি।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের সেরা অর্জন:
প্রতিযোগিতার বিগত ১২ আসরে অংশ নিয়ে শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা জাগানোর পরও বাংলাদেশের সেরা প্রাপ্তি ২০১২ ও ২০১৬ আসরে ফাইনাল খেলে রানার্স-আপ হওয়ার তকমা পাওয়া। ওয়ানডে ফরম্যাটের ২০১২ আসরে পাকিস্তানের কাছে হেরে ও ২০১৬ সালে ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের প্রথম এশিয়া কাপের আসরের শিরোপা জয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয় টাইগারদের।

Also Read - এশিয়া কাপে বাংলাদেশের শীর্ষ দশ রান সংগ্রাহক

 

 

ওয়ানডে ফরম্যাটের এশিয়া কাপে বাংলাদেশের শীর্ষ পাঁচ রান সংগ্রাহক:
১. তামিম ইকবাল-১২ ম্যাচে ৫১৭ রান।
২. মুশফিকুর রহিম- ১৪ ম্যাচে ৩৯৭ রান।
৩. আতহার আলি খান- ১১ ম্যাচে ৩৬৮ রান।
৪. সাকিব আল হাসান- ৯ ম্যাচে ৩৫৩ রান।
৫. আকরাম খান- ১৩ ম্যাচে ৩৪৫ রান।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের সেরা পাঁচ সংগ্রহ:
১. মুশফিকুর রহিম- ১১৭ (১১৩) প্রতিপক্ষ ভারত, ফতুল্লা ২০১৪।
২. অলক কাপালি- ১১৫ (৯৬) প্রতিপক্ষ ভারত, করাচি ২০০৮।
৩. মোহাম্মদ আশরাফুল- ১০৯ (১২৬) প্রতিপক্ষ আরব আমিরাত, লাহোর ২০০৮।
৪. এনামুল হক- ১০০ (১৩২) প্রতিপক্ষ পাকিস্তান, ঢাকা ২০১৪।
৫. জুনায়েদ সিদ্দীকি- ৯৭(১১৪) প্রতিপক্ষ পাকিস্তান, ডাম্বুলা ২০১০।

বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের পাঁচ ইনিংস:
১. ৩২৬/৩ বনাম পাকিস্তান, ঢাকা ২০১৪।
২..৩০০/৮ বনাম আরব আমিরাত, লাহোর ২০০৮।
৩. ২৯৩/৫ বনাম ভারত, ঢাকা ২০১২।
৪. ২৮৩/৬ বনাম ভারত, করাচি ২০০৮।।
৫. ২৭৯/৭ বনাম ভারত, ফতুল্লা ২০১৪।

সাকিবের বিকল্প নিয়ে এখনই ভাবছেন না নান্নু

ওয়ানডে ফরম্যাটের এশিয়া কাপে বাংলাদেশের শীর্ষ পাঁচ উইকেট শিকারি বোলার:
১. আব্দুর রাজ্জাক- ১৮ ম্যাচে ২২ উইকেট।
২. সাকিব আল হাসান- ৯ ম্যাচে ১২ উইকেট।
৩. মাশরাফি মুর্তজা- ১৩ ম্যাচে ১২ উইকেট।
৪. শাহাদাত হোসেন- ৯ ম্যাচে ১০ উইকেট।
৫. মোহাম্মদ রফিক- ৮ ম্যাচে ৮ উইকেট।

সেরা বোলিং ফিগার:
সাইফুল ইসলাম- ১০-২-৩৬-৪ বনাম শ্রীলঙ্কা, ১৯৯৫।


আরও পড়ুনঃ এশিয়া কাপে বাংলাদেশের শীর্ষ দশ রান সংগ্রাহক

 

 

Related Articles

এপিএলের প্লেয়ার ড্রাফটে তামিম, মুশফিক, আশরাফুলরা

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশি বোলারদের যত হ্যাটট্রিক

উইন্ডিজ সফরের টেস্ট স্কোয়াডে ‘ইন-আউট’ যারা

দ্বিগুণেরও বেশি বাড়ল রাজ্জাকদের বেতন

সাকিবের পাশে থিতু হতে চান অপু