Score

এশিয়া কাপের দলে ইমরুল-সৌম্য!

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের শেষ দুই ম্যাচে (আফগানিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে) ব্যাটিং বিপর্যয় ছিল চোখে পড়ার মত। এমনকি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয়ের ম্যাচেও দলের মূল ব্যাটিং অর্ডার ছিল অনেকটাই ব্যর্থ। সেই ব্যর্থতা কাটাতে আগামীকাল (২২ সেপ্টেম্বর) সংযুক্ত আরব আমিরাতে উড়াল দিচ্ছেন ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকার।

বলা বাহুল্য, এই দুই ব্যাটসম্যানের আরব আমিরাতে উড়াল দেওয়ার প্রধান এবং একমাত্র কারণ দলের সাথে যোগ দেওয়াই। বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট কমিটির উদ্যোগে ইমরুল ও সৌম্য অবশ্য ব্যস্ত ছিলেন চারদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে। সেটি রেখেই এখন তারা প্রস্তুত হচ্ছেন এশিয়া কাপের জন্য।

মূলত বাংলাদেশের টপ অর্ডার, বিশেষ করে ওপেনিং জুটির দৈন্যদশা কাটাতেই এই দুই ক্রিকেটারকে দলে টেনেছে টিম ম্যানেজমেন্ট। আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে চোট পাওয়ার পর আর মাঠে নামা হয়নি তামিম ইকবালের, এশিয়া কাপের বাকি কোনো ম্যাচে মাঠে নামা হবেও না। লিটন দাসকে সঙ্গে নিয়ে তামিমের বদলি হিসেবে দুই ম্যাচে ওপেনার হিসেবে নেমেছিলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। যদিও লিটন এবং শান্ত দুজনই আস্থার প্রতিদান দিতে ব্যর্থ হয়েছেন।

Also Read - মিরাজ-মাশরাফির দৃঢ়তায় বাংলাদেশের সম্মানজনক সংগ্রহ

দুজনের দ্রুত সাজঘরে ফেরার খেসারত দিয়ে আফগানিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে দলের ব্যাটিং অর্ডারকে। উদ্বোধনী জুটিতে পরিবর্তন তাই অনেকটাই ‘বাধ্যতামূলক’ হয়ে পড়েছিল। আর এই কারণেই দেশের প্রথম সারির দুই ব্যাটসম্যান ও একাধারে বাঁহাতি ওপেনার ইমরুল ও সৌম্যকে দলভুক্ত করেছে বোর্ড।

ইমরুল আর সৌম্য দলের সাথে যোগ দিচ্ছেন যখন, দুজনের উপর তখন নির্দ্বিধায় রয়েছে পাহাড় সমান চাপ। দেশসেরা ওপেনার তামিম না থাকায় ব্যাটিং অর্ডার অনেকটাই নড়বড়ে। দুই ম্যাচ খেলা দুই ওপেনারের বিকল্প হিসেবে খেলতে নামলেও ইমরুল-সৌম্যর বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারে কন্ডিশন। সেই বাঁধা দুজনে যত শক্ত হাতে মোকাবেলা করবেন, বাংলাদশের জন্য ততই মঙ্গল। সেই মঙ্গল বয়ে আনার লক্ষ্যে দুই ওপেনার আরব আমিরাতের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ ত্যাগ করবেন শনিবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়।

এশিয়া কাপের বাংলাদেশ স্কোয়াড-

মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন কুমার দাস, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, আরিফুল হক, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নাজমুল হোসেন শান্ত, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, আবু হায়দার রনি।

আরও পড়ুন: মাশরাফির দলে থাকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আগারকার

Related Articles

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’

এক নয় মাশরাফির তিন ইনজুরি