Score

এশিয়া কাপ থেকে শ্রীলঙ্কার বিদায়

সাফল্য এবং অভিজ্ঞতার বিচারে গ্রুপের সবচেয়ে শক্তিশালী দল ছিল শ্রীলঙ্কা। অথচ সেই দলটিই কিনা বাদ পড়ল, তাও দুটি ম্যাচেই হেরে! এশিয়া কাপ ক্রিকেটে বাংলাদেশের কাছে বিশাল ব্যবধানে পরাজয় বরণ করে নেওয়ার পর সোমবারের ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছেও পাত্তা পায়নি লঙ্কানরা। একপেশে ম্যাচে আফগানিস্তান জিতেছে ৯১ রানে। এতে আফগানদের পাশাপাশি পরবর্তী রাউন্ডে খেলা নিশ্চিত হয়েছে বাংলাদেশেরও।

এশিয়া কাপ থেকে শ্রীলঙ্কার বিদায়

আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে সবগুলো উইকেট হারিয়ে ২৪৯ রান সংগ্রহ করে আফগানিস্তান। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭২ রান আসে রহমত শাহের ব্যাট থেকে। এছাড়া ওপেনার ইহসানউল্লাহ জানাত ৪৫ এবং হাশমাতউল্লাহ শাহিদী ৩৭ রান করেন।

শ্রীলঙ্কার পক্ষে থিসারা পেরেরা একাই শিকার করেন পাঁচটি উইকেট। এছাড়া দুটি উইকেট লাভ করেন আকিলা ধনঞ্জয়া।

Also Read - ‘তামিম-মুশফিক ভাইয়ের বীরত্বর কাছে গরম কঠিন কিছু না’

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ওপেনার কুশাল মেন্ডিসকে হারায় শ্রীলঙ্কা। দলীয় রান ৫০ পার হওয়ার পরপরই সাজঘরে ফেরেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেও উপুল থারাঙ্গা সাজঘরে ফিরলে দায়িত্ব বর্তায় মিডল অর্ডারের উপর। তবে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস-থিসারা পেরেরাদের চেষ্টা নস্যাৎ হয়ে যায় আফগান বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে। ব্যাটিং বিপর্যয়ে শেষ পর্যন্ত ১৫৮ রানের থামে শ্রীলঙ্কার ইনিংস। এতে ইনিংসের ৫২ বল বাকি থাকতেই ৯১ রানের বড় জয় পায় আফগানিস্তান। শ্রীলঙ্কার পক্ষে থারাঙ্গা সর্বোচ্চ ৩৬ এবং থিসারা পেরেরা ২৮ রান করেন।

জয়ী দলের পক্ষে দুটি করে উইকেট শিকার করেন মুজিব উর রহমান, গুলবাদিন নাইব, মোহাম্মদ নবী ও রশিদ খান। ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন রহমত শাহ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

আফগানিস্তান ২৪৯/১০ (৫০ ওভার); রহমত ৭২, ইহসানউল্লাহ ৪৫; থিসারা ৫৫/৫, ধনঞ্জয়া ৩৯/২

শ্রীলঙ্কা ১৫৮/১০ (৪১.২ ওভার); থারাঙ্গা ৩৬, থিসারা ২৮; রশিদ ২৬/২, গুলবাদিন ২৯/২

ফল: আফগানিস্তান ৯১ রানে জয়ী

আরও পড়ুন: ভয়কে জয় করতে চান মিঠুন

Related Articles

ফৌজদারি অপরাধ হচ্ছে ম্যাচ ফিক্সিং?

সিরিজ নির্ধারণী শেষ ওয়ানডেতে হাসবে কারা?

আগামী এশিয়া কাপের আয়োজক পাকিস্তান!

পার্থ টেস্টে থাকছেন না রোহিত-অশ্বিন, নেই পৃথ্বীও

সিরিজ জিততে মরিয়া শাই হোপ