‘এ’ গ্রেডের খেলোয়াড় বণ্টন নিয়ে বিতর্ক, বিসিবি যা বলছে

বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) সম্পন্ন হয়েছে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের প্লেয়ার্স ড্রাফট। অংশগ্রহণকারী পাঁচটি দল ড্রাফট থেকে নিজেদের স্কোয়াড গুছিয়ে নিয়েছে। তবে দিনশেষে ক্রিকেট পাড়ায় উঁকি দিয়েছে একটি বিতর্ক।

'এ' গ্রেডের খেলোয়াড় বণ্টন নিয়ে বিতর্ক, বিসিবি যা বলছে

Advertisment

বিতর্কটি ‘এ’ গ্রেডের ক্রিকেটারদের দলে অন্তর্ভুক্তি নিয়ে। মোট ৫ জন ক্রিকেটার ছিলেন সর্বোচ্চ ১৫ লাখ পারিশ্রমিকের ‘এ’ গ্রেডে। দলের সংখ্যাও যেহেতু এই গ্রেডের সদস্য সংখ্যার সমান, অনুমান করা হচ্ছিল প্রতি দলই হয়ত একজন করে গ্রেড ‘এ’ ক্রিকেটার দলভুক্ত করবে।

কিন্তু ড্রাফট শেষে দেখা যায়, জেমকন খুলনা দলে ভিড়িয়েছে ‘এ’ গ্রেডের দুই ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। অন্যদিকে মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীতে ‘এ’ গ্রেডের কোনো ক্রিকেটারই নেই। প্রাথমিকভাবে ‘এ’ গ্রেডের ক্রিকেটারদের অনেকটা আইকনের মতই বিবেচনা করা হচ্ছিল। কিন্তু এক দলে দুই ‘এ’ গ্রেড ক্রিকেটার, আর আরেক দলে কোনো ‘এ’ গ্রেড ক্রিকেটার না থাকার বিষয়টি নিয়ে স্বভাবতই প্রশ্ন ওঠে।

তবে বিসিবির দাবি, স্পন্সরদের পরিকল্পনা অনুযায়ীই এমনটি করা হয়েছে। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘এটা প্রক্রিয়ারই অংশ। এটা আগে আলোচনা করেই হয়েছে। এটা হতেই পারে। দল গঠনের ব্যাপারে আমরা স্পন্সরদের সাথে যতটুক কথা বলেছি, সবাই স্বাভাবিকভাবে নিয়েছে।’

অবশ্য তবুও বিতর্ক থাকছেই। দেশি ক্রিকেটারদের নিয়ে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টে দলগুলোর ভারসাম্য রক্ষার উপর জোর দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ‘এ’ গ্রেডের খেলোয়াড়হীন রাজশাহীর স্কোয়াড একটু সাদামাটাই যেন। দল গঠনে রাজশাহীর খরচও হয়েছে সবচেয়ে কম। সেক্ষেত্রে বিসিবি প্রতি দলে একজন ‘এ’ গ্রেড ক্রিকেটারের অন্তর্ভুক্তি বাধ্যতামূলক করে দিতে পারত কি না, এমন প্রশ্নও উঠছে।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।