Scores

পিএসএল ফাইনালে মুখোমুখি পেশোয়ার ও কোয়েটা

আজ রাতে পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ফাইনালে মুখোমুখি হবে পেশোয়ার ও কোয়েটা। ফাইনাল খেলতে লাহোর পৌঁছেছেন বাংলাদেশী ওপেনার এনামুল হক বিজয়।


লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে আজ চোখ থাকবে ক্রিকেট দুনিয়ার। পাকিস্তান সুপার লীগের (পিএসএল) দ্বিতীয় আসরের ফাইনাল হতে যাচ্ছে এ মাঠেই। শিরোপার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে সরফরাজ আহমেদের কোয়েটা গ্লাডিয়েটর্স ও ড্যারেন স্যামির পেশোয়ার জালমি।

Also Read - বিসিএলের শেষ রাউন্ডে শিরোপায় চোখ উত্তরাঞ্চলের


এবারের ফাইনালিস্ট দুই দলে খেলেছেন বাংলাদেশের তিন খেলোয়াড়। সাকিব আল হাসান তামিম ইকবাল খেলেন পেশোয়ার জালমিতে। আর মাহমুদুল্লাহ খেলেন কোয়েটার হয়ে। কিন্তু শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের টেস্ট সিরিজের কারণে ফাইনালের আগেই তারা ফিরে আসেন। তবে ফাইনালে থাকবেন বাংলাদেশের এক ক্রিকেটার। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয় কোয়েটা গ্লাডিয়েটর্সের হয়ে খেলবেন। শুধু ফাইনাল খেলার জন্য তিনি গতকাল পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়েন।

গ্রুপপর্বের লড়াই শেষে এই দল দু’টিই ছিল পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। প্রথম কোয়ালিফাইং ম্যাচে মুখোমুখি হয় তারা। সেখানে শহিদ আফ্রিদি-ড্যারেন স্যামির পেশোয়ার জালমিকে মাত্র ১ রানে হারিয়ে ফাইনালে উঠে যায় সরফরাজ আহমেদের কোয়েটা। গত বছরও তারা একই পর্যায়ে পেশোয়ারকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে। এবারের ওই হারের ফলে ফাইনালের টিকিট কাটার জন্য শেষ কোয়ালিফাইং ম্যাচ খেলতে হয় পেশোয়ারকে।

তবে ফাইনালে পুরোপুরি নতুন চার বিদেশি ক্রিকেটার নিয়ে ফাইনালে নামতে হবে কোয়েটার। বাংলাদেশের এনামুল হক বিজয়ের সঙ্গে কোয়েটার হয়ে খেলতে সম্মত হয়েছেন ইংল্যান্ডের জ্যাড ড্যারেনবাচ, দক্ষিণ আফ্রিকার রিচার্ড লেভি, জিম্বাবুয়ের গ্রায়েম ক্রেমার ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিসমার সানতোকি।

তবে এ সমস্যায় খুব একটা ভুগতে হচ্ছে না পরশু রাতে করাচিকে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করা পেশোয়ার জালমিকে। তাদের তিন নিয়মিত বিদেশি ড্যারেন স্যামি, মারলন স্যামুয়েলস ও ক্রিস জর্ডান ফাইনাল খেলতে লাহোর যেতে রাজি হয়েছেন। তবে দলের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদিকে পাচ্ছে না তারা।

পরশু রাতে করাচির বিপক্ষে ম্যাচে পোলার্ডের ক্যাচ ধরতে গিয়ে আঙুল ফেটে যায় আফ্রিদির। রক্তাক্ত হাত নিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। ১২টি সেলাই দিতে হয়েছে, সুস্থ হতে কমপক্ষে দুই সপ্তাহ লাগবে। তাই ফাইনাল খেলা হচ্ছে না তার। স্বভাবতই হতাশায় পুড়ছেন আফ্রিদি, ‘নিজেদের দর্শকের সামনে ফাইনালটা খেলতে চেয়েছিলাম। কিন্তু কিছু বিষয় থাকে যা আমাদের কারও হাতে থাকে না।’ তবে তার বিশ্বাস তিনি না থাকলেও পেশোয়ারই এবার পিএসএল জিতবে।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড ফাইনাল সফল করার জন্য সব রকমই ব্যবস্থা নিয়েছে। শুধু পুলিশ নয়, লাহোর শহরে সার্বক্ষণিক সেনাবাহিনীও টহল দিচ্ছে। শহরে সব মার্কেট বন্ধ রাখা হয়েছে। সন্দেহভাজন মনে হলেই গ্রেফতার করা হচ্ছে। এছাড়া হেলিকপ্টারও টহল দিচ্ছে। পিসিবি চাচ্ছে এই ফাইনাল শান্তিপূর্ণভাবে শেষ করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরিয়ে আনতে।

  • মাকসুদুল হক, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম।
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যর্থ বিজয়, চাপে বিসিবি একাদশ

অনূর্ধ্ব উনিশের সেরা দশ ব্যাটসম্যান, কোথায় এখন তারা?

বিজয়ের বৌভাতে ক্রিকেটারদের মিলনমেলা

ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ক্রিকেটাররা

ঈদের পর বিজয়ের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা