Scores

‘ঐ মুহূর্তে অনেক নার্ভাস ছিলাম’

দীর্ঘ সময় পর টেস্টে ফিরে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন অধিনায়ক সকিব আল হাসান। শুধু ব্যাটসম্যান সাকিবই না, অধিনায়ক সাকিবও ছিলেন বেশ নার্ভাস! তবে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছেন তিনি।

যাই করি, দলের জন্য সাকিব

আঙুলের চোটের কারণে এশিয়া কাপের পর থেকে ছিলেন বিশ্রামে। পুরোপুরি সুস্থ না হওয়াতে দেখা যায়নি ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে। নিজের সর্বশেষ টেস্ট খেলেছিলেন উইন্ডিজের বিপক্ষে তাদের ঘরের মাটিতে। চোট থেকে সেরে টেস্টে ফিরেছেন সেই উইন্ডিজের বিপক্ষেই। তবে এবার চিত্রটা উল্টো। সেবার হার দিয়ে শেষ করেছিলেন সাকিব। তবে এবার ঘরের মাঠে উইন্ডিজের বিপক্ষে জয় দিয়ে সিরিজ শুরু করেছেন তিনি।

চোট থেকে ফিরে আসা সাকিবের উপরই নজর ছিল সবার। তবে ব্যাট হাতে তেমন একটা পারফর্ম না করতে পারলেও বল হাতে উজ্জ্বল ছিলেন তিনি। চোট কাটিয়ে ফিরে এসেই রেকর্ডের খাতায় নাম লিখিয়েছেন সাকিব। সেই সাথে উইন্ডিজের ৯ম উইকেটের জুটি ভাঙাতে অবদান রয়েছেন তার। কেননা ভয়ংকর হয়ে উঠা ওয়ারিকেনের ক্যাচ লুফে নিয়ে দলকে ম্যাচে ফিরিয়েছেন সাকিব। সেই অভিজ্ঞতার কথাই সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন তিনি।

Also Read - এমন উইকেটে ব্যাটিং বিপর্যয় হতে পারে!

“ড্রেসিং রুমে অনেক নার্ভাস ছিলাম। মাঠে আসার পর ততটা নার্ভাস লাগেনি যতটানা ড্রেসিং রুমে মনে হয়েছিলো। প্রথম বল, পুরোটাই আল্লাহ্‌র উপর ছেড়ে দিছিলাম, খুব লাকি ছিলাম। আর প্রেসার সবচেয়ে বেশি লাস্ট ক্যাচটা (হাসি)। কারণ পার্টনারশিপটা বড় হচ্ছিল এবং সবাই একটু প্যানিক করা শুরু করে দিয়েছিল। যদিও আমার কাছে মনে হয়, আমি ঠান্ডা ছিলাম।”

তিনি আরও যোগ করেন, “বল যখন মাথার উপরে তখন এই বিষয়গুলো মাথায় ঘুরছিল যে যদি মিস হয়ে যায় তাহলে তো সবাই আরও শেষ হয়ে যাবে। আলহামদুলিল্লাহ, ভালোভাবে শেষ করতে পেরেছি এটাই আমার কাছে সবথেকে বড় পাওয়া।”

উল্লেখ্য, উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে মোট পাঁচ উইকেট শিকার করেছেন সাকিব। প্রথম ইনিংসে তিনটি এবং দ্বিতীয় ইনিংসে দুইটি উইকেট শিকার করেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ এমন উইকেটে ব্যাটিং বিপর্যয় হতে পারে!

Related Articles

ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশে মুস্তাফিজ

উইন্ডিজকে ২৫৬ রানের টার্গেট দিল বাংলাদেশ

হার দিয়ে এশিয়া কাপ শুরু বাংলাদেশের

সাকিব-মিরাজের বোলিং ঘূর্ণিতে দিশেহারা উইন্ডিজ

চার হাজারী ক্লাবে মুশফিক