SCORE

সর্বশেষ

ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহের রেকর্ড গড়ল ইংল্যান্ড

নটিংহ্যামে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে রেকর্ড গড়া সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহের রেকর্ড গড়ল ইংল্যান্ড

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ডকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টো। উদ্বোধনী জুটিতে দুজনে গড়েন ১৫৯ রানের অনবদ্য পার্টনারশিপ।

Also Read - ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে কারান ভ্রাতৃদ্বয়

সাতটি চার ও চারটি ছক্কায় ৬১ বল মোকাবেলা করা রয় করেন ৮২ রান। সেঞ্চুরির কাছাকাছি গিয়েও তাকে রানের সংখ্যা দুই অঙ্কে রেখে সাজঘরে ফিরতে হয় ডি’আর্কি শর্ট ও টিম পেইনের যৌথ চেষ্টায় রানআউট হয়ে।

উদ্বোধনী সঙ্গীর বিদায়েও বেয়ারস্টোর মারকুটে ব্যাটিংয়ে পড়েনি কোনো ভাঁটা। বরং তাকে যোগ্য সঙ্গ দিয়ে ওয়ান ডাউনে নামা অ্যালেক্স হেলসও শুরু করেন তাণ্ডব। দ্বিতীয় উইকেটে দুজনে গড়েন ১৫১ রানের পার্টনারশিপ। অসাধারণ এই জুটি ভাঙে অ্যাস্টন অ্যাগারের ডেলিভারিতে বেয়ারস্টো জাই রিচার্ডসনের হাতে ক্যাচ তুলে দিলে। ৯২ বলের মোকাবেলায় ১৩৯ রান আসে বেয়ারস্টোর ব্যাট থেকে, যেখানে ছিল পনেরোটি চার ও পাঁচটি ছক্কা।

বেয়ারস্টোর বিদায়ের পরও নিজের মত করে খেলতে থাকেন হেলস। অজি বোলারদের সামনে তিনি হয়ে ওঠেন বেয়ারস্টোর চেয়েও ভয়ঙ্কর। তার সাথে সুবিধা করতে পারেননি জস বাটলার, তাই ব্যক্তিগত ১১ রানেই ফিরতে হয়েছে সাজঘরে রিচার্ডসনের শিকার হয়ে। তবে হেলসের তাণ্ডব যেন অতো সহজে থামবার নয়!

দলীয় ৪৫৯ রানে হেলস যখন সাজঘরে ফিরছেন ১৪৭ রান করে, নটিংহ্যামের গ্যালারি তাকে রীতিমত কুর্নিশ করছে। ততক্ষণে ইংল্যান্ড পেয়ে গেছে ওয়ানডে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় দলীয় সংগ্রহের নিশ্চয়তা। হেলসের এই দানবীয় ইনিংসে ছিল ষোলটি চার ও পাঁচটি ছক্কা, যার ব্যাপ্তি ছিল বেয়ারস্টোর সমতুল্য কিন্তু অধিক কার্যকরী- মাত্র ৯২ বল!

শেষদিকে হেলস-বেয়ারস্টো-রয়ের ছন্দ ধরে রেখেছেন অধিনায়ক ইয়ন মরগান। শেষদিকে মাত্র ৩০ বলের মোকাবেলায় ৬৭ রান করেন তিনি। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে দলের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৪৮১ রান।

ম্যাচটির লাইভ স্কোরকার্ড-

আরও পড়ুনঃ ড্র’ই হল সেন্ট লুসিয়া টেস্টের পরিণতি

Related Articles

ব্যানক্রফটের নতুন ‘ঘর’

পাপন কিংবা সাকিব নন, তারিখ জানাবেন হোয়ে

ইংল্যান্ডের সর্বকালের সেরা একাদশ ঘোষণা

সিরিজ জিতেও রেটিং হারাল বাংলাদেশ

‘বল টেম্পারিংয়ের ভিডিও এডিটেড ছিল’