Scores

‘ওয়ান ম্যান আর্মি শো’ মনে করেন না সাকিব

বিশ্বকাপে সাতটি ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ জিতেছে তিনটিতে, আর তিনটি ম্যাচেই প্রত্যক্ষ অবদান সাকিব আল হাসানের। দিনকে দিন নিজেকে নিয়ে যাচ্ছেন অনন্য উচ্চতায়। তার অসাধারণ পারফরম্যান্সই বাংলাদেশকে এনে দিয়েছে তিন জয়, সেই তিন জয়েই তিনি হয়েছেন ম্যাচ সেরা।

‘ওয়ান ম্যান আর্মি শো’ মনে করেন না সাকিব

তবুও বাংলাদেশের সাফল্যকে ‘ওয়ান ম্যান আর্মি শো’ মানতে নারাজ সাকিব। তবে নিজের অদম্য পারফরম্যান্সে প্রকাশ করেছেন সন্তুষ্টি।

Also Read - ভারতের বিপক্ষে সেরাটা ঢেলে দেওয়ার অপেক্ষায় বাংলাদেশ


সাকিব বলেন, ‘এটি খুবই সন্তুষ্টির। টুর্নামেন্ট যেভাবে যাচ্ছে তাতে আমি খুবই খুশি। আরও দুইটা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ আছে। বল ও ব্যাট হাতে অবদান রাখতে পারা তৃপ্তির বিষয়, এক সেক্টরে অবদান রাখার চেয়েও বেশি তৃপ্তির। আমি আমার পারফরম্যান্সকে র‍্যাংক করি না। কোনো কিছু অর্জন করতে পারলে ভালো লাগে।’

এই ম্যাচে সাকিব গড়েছেন অনেকগুলো রেকর্ড। সংবাদ সম্মেলনে জানালেন, সব রেকর্ডের কথাই জানেন। কিংবদন্তীদের কাতারে পৌঁছে গেছেন কি না— এমন প্রশ্নের জবাবে লাজুক হাসিতে উত্তরের ভার ছেড়ে দিলেন প্রশ্নকর্তার উপরই।

ভালো করলে যেমনি প্রশংসা, তেমনি খারাপ করলে সমালোচনার ঝড়। বাংলাদেশসহ উপমহাদেশের ক্রিকেটে এটি অনিয়মিত চিত্র নয়। সাকিবকে প্রশ্ন করা হল— সেই সমালোচনাকে কীভাবে দেখেন? এক চিলতে হাসিতে তার জবাব- ‘দেখিই না একদম!’

সাকিবের মূল ভূমিকার পাশাপাশি আফগান-বধে অবদান ছিল মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, মোসাদ্দেক হোসেন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের। বোলাররাও ছিলেন আঁটসাঁট বোলিংয়ের পসরা বারকোশে সাজিয়ে। সাকিব ম্যাচ জয়ের কৃতিত্ব দিচ্ছেন সবাইকেই।

‘ওয়ান ম্যান আর্মি শো নয়। এরকম উইকেটে সবার অবদান গুরুত্বপূর্ণ, যা আজকে ছিল। আমার পারফরম্যান্স ভালো হচ্ছে আল্লাহর রহমতে, তবে সবার কন্ট্রিবিউশন ছাড়া ভালো করা যেত না। সাইফউদ্দিন-মুস্তাফিজরা টুর্নামেন্টে অনেক উইকেট পেয়ে গেছে। খুব গতি বা স্কিল না থাকা সত্ত্বেও পেসারদের এমন অর্জন অনেক বড়।’

হুট করে সাকিবের পারফরম্যান্সে এমন বাদশাহী রুপান্তরের কারণ কী? অনেক কারণই থাকতে পারে, তবে সাকিব মনে করছেন বিশ্বকাপের আগে তার ফিটনেসে উন্নতিই মূল টনিক হিসেবে কাজ করছে। বিশ্বকাপের আগে চোট থেকে সেরে ওঠার সময়ে সাকিব ওজন কমিয়েছেন ৬ কেজি!

‘ওয়ান ম্যান আর্মি শো’ মনে করেন না সাকিব

তার ভাষ্য, ‘আমার কাছে মনে হয় শারীরিক ফিটনেস মানসিকভাবে অনেক সাহায্য করেছে। যেহেতু অনেক কঠোর শ্রম করেছি, ওটা আমাকে এখন মানসিক শক্তি যোগাচ্ছে। এক-দেড় মাস ফিটনেসের কাজ অনেক সহায়তা করছে। যেকোনো কঠিন পরিস্থিতিতেও ভালো সিদ্ধান্ত নিতে মানসিক ফিটনেস প্রয়োজন হয়। এছাড়া অন্যান্য কিছুতে খুব বেশি পরিবর্তন করিনি। তবে ফিটনেসের কাজটা বেশ সাহায্য করছে।’

রোজ বোলে প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশ জড়ো করেছিল ২৬২ রান, ৭ উইকেট হারিয়ে; উইকেট ও মাঠ বিচারে যা ছিল শক্ত পূঁজি। সেই পূঁজি জড়ো করায় ছিল সাকিব আল হাসানের অর্ধ-শতকের অবদান। এরপর বল হাতে সাকিব ছিলেন আরও দুর্ধর্ষ। আফগানিস্তানের জয়ের স্বপ্ন ফিকে হয়ে গেছে তার পারফরম্যান্সের সামনেই। সাকিবের পারফরম্যান্স পুরো ম্যাচে এতটাই অতিমানবীয় ছিল যে, ম্যাচের শেষদিকে তার ফিল্ডিং হাতছাড়া দেখে ধারাভাষ্যকার বলেই ফেললেন- সাকিব অবশেষে মানুষের ভূমিকায়!

‘অতিমানবীয় পারফরম্যান্স’ শব্দজোড়া হয়ত অনেক ক্রিকেটীয় সংবাদ বা নিবন্ধেই ব্যবহৃত হয়। কিন্তু সত্যিকার অর্থে অতিমানবীয় পারফরম্যান্স বলতে যা বোঝায়, সোমবার তার ‘একক প্রদর্শনী’ খুলে বসেছিলেন সাকিব আল হাসান। হেসেখেলে কীভাবে মুখের ভাষায় হুংকার দেওয়া প্রতিপক্ষকে বুলডোজারের মত গুড়িয়ে দেওয়া যায়, সাকিব যেন তা-ই দেখালেন! তবুও বলছেন- এটি ‘ওয়ান ম্যান আর্মি শো’ নয়!

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

Related Articles

আইসিসির ট্রলের শিকার শচীন!

শীর্ষেই রইলেন সাকিব, উইলিয়ামসন-রয়ের উন্নতি

বাটলারের চোখে এটি ‘অবিশ্বাস্য’!

মরগানের হাতের বিশ্বকাপ ট্রফিটি আসল নয়, রেপ্লিকা!

শচীনের বিশ্বকাপ একাদশে পাঁচ ভারতীয়