'ওয়ার্কলোড' বিবেচনায় ক্রিকেটারদের অতিরিক্ত ম্যাচ খেলাবে না বিসিবি

নতুন এফটিপির বিপুল সংখ্যক ম্যাচের কারণে খেলোয়াড়দের ওপর বাড়তি চাপ পড়বে কিনা সেটা নিয়ে ভাবতে হচ্ছে বিসিবিকে। এই কারণে সূচিতে বাড়তি ম্যাচ যোগ করতে রাজি নয় বোর্ড।

'ওয়ার্কলোড' বিবেচনায় ক্রিকেটারদের অতিরিক্ত ম্যাচ খেলাবে না বিসিবি

Adnan Ahmed
ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রকাশিত হয়েছে -

আপডেট হয়েছে -

খেলার সারসংক্ষেপ

  • আইসিসির নতুন এফটিপিতে বিপুল সংখ্যক ম্যাচ পেয়েছে বাংলাদেশ।
  • সবকিছু বিবেচনা করে চাইলেই বা পেলেই বাড়তি ম্যাচ নিতে রাজি নয় বিসিবি।

  • আইসিসি আগামী চার বছরের জন্য ফিউচার ট্যুরস প্রোগ্রাম (এফটিপি) প্রকাশ করেছে। ১৭ আগস্ট (বুধবার)  প্রকাশিত সূচি অনুযায়ী টাইগারদের সামনে বিপুল সংখ্যক ম্যাচ। ২০২৩ থেকে ২০২৭ সালের মধ্যে সব মিলিয়ে কমপক্ষে ১৫০টি ম্যাচ খেলবে সাকিব-তামিমরা। এর বাইরেও আইসিসি ও এসিসির টুর্নামেন্ট খেলতে হবে। এছাড়া একাধিক বোর্ডের আলোচনার ভিত্তিতে দ্বিপাক্ষিক বা তিন/চার জাতির টুর্নামেন্টেও অংশ নিতে হতে পারে। তাইতো খেলোয়াড়দের ওপর বাড়তি চাপ পড়বে কিনা সেটা নিয়ে ভাবতে হচ্ছে বিসিবিকে। এই কারণে সূচিতে বাড়তি ম্যাচ যোগ করতে রাজি নয় বোর্ড।
    খেলোয়াড়দের ফিট থাকাকে গুরুত্ব দিচ্ছে বিসিবি। 

    ২০২৩ থেকে ২০২৭ ক্রিকেট মৌসুমে সর্বমোট ১৫০টি ম্যাচের মধ্যে টাইগারদের ৩৪টি টেস্ট, ৫৯টি ওয়ানডে ও ৫৭টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে হবে। এই সূচিতে দিনের হিসেবে ২৮৬ দিন বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের মাঠে থাকতে হতে পারে। এর বাইরে প্র্যাকটিস কিংবা ভ্রমণ ব্যস্ততা তো আছেই। সাথে আইসিসি, এসিসি বা আলোচনার ভিত্তিতে কিছু সিরিজ যোগ হতে পারে।
    মিরপুরে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলছিলেন, “এই ম্যাচগুলো (এফটিপি ২০২৩-২০২৭) আইসিসি ও এসিসির ইভেন্টের বাইরে। আইসিসি প্রতি বছর একটা ইভেন্ট করছে। এসিসিও এক বছর বিরতি দিয়ে এশিয়া কাপ করছে। তাই উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ম্যাচ আছে। ম্যাচগুলো কতটুকু নিজেদের আয়ত্তে রেখে আমরা অংশগ্রহণ করবো, সেটাই কিন্তু আমাদের দেখার বিষয় থাকে। চাইলেও কিন্তু আমাদের ম্যাচ বাড়ানোটা ঠিক হবে না।”
    ব্যস্ত সূচির কারণে খেলোয়াড়দের ওয়ার্কলোড নিয়ে ভাবতে হচ্ছে বিসিবিকে। বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, “ম্যাচের দিন সংখ্যায় আমরা চতুর্থ অথবা পঞ্চম অবস্থানে আছি। প্লেয়ারদের ওয়ার্কলোড নিয়ে চিন্তা করতে হবে। সবকিছু বিবেচনা করে ম্যাচ চাইলেই বা পেলেই তো নেওয়া যাবে না। এর  (এফটিপির) বাইরেও কোনো বড় ইভেন্টের আগে কিছু দ্বিপাক্ষিক বা ত্রিপাক্ষিক টুর্নামেন্ট হয়।”

    বাংলাদেশের ক্রিকেটসহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সব ধরনের খবর সবার আগে পেতে এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রাইব করুন BDCricTime Videos চ্যানেলটি।

    বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।
    সম্পর্কিত খবর