Scores

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের হেড কোচের দায়িত্বে ওয়ালশ

বাংলাদেশের বোলিং কোচের দায়িত্ব হারানোর পর নতুন দায়িত্বে নিযুক্ত হয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের কিংবদন্তী পেসার কোর্টনি ওয়ালশ। এবার নিজ দেশের ক্রিকেটের জন্য কাজ করবেন এ কিংবদন্তী পেসার।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের হেড কোচের দায়িত্বে ওয়ালশ

এবার ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রধান কোচের ভূমিকায় দেখা যাবে এক সময়ে বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচ এবং প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করা কোর্টনি ওয়ালশকে। তবে পুরুষ দলের দায়িত্বে নয়। মূলত ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ তাকে দায়িত্ব দিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ নারী দলের। অন্তর্বর্তীকালীন কোচ আন্দ্রে কোলের অধীনে ইংল্যান্ডের কাছে বাজেভাবে হারে ওয়েস্ট ইন্ডিজ নারী দল।

Also Read - সাইফের পর ফিরে গেলেন শান্ত'ও


অবশ্য গত মে থেকেই প্রধান কোচের পদটি শুন্য ছিল। মূলত তার থেকেই দায়িত্ব বুঝে নিবেন নারীদের নতুন কোচ ওয়ালশ। নতুন এ কোচের সঙ্গে ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত চুক্তি করেছে ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এই দুই বছরে শুধু জাতীয় দলই নয়, দেখবেন হাই পারফরম্যান্স দলও। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ক্রিকেটকে কিছু দিতে পারার সুযোগ পেয়ে দারুণ উচ্ছ্বাসিত ওয়ালশ।

“ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের উন্নতির জন্য যেকোন ভাবে প্রতিদান দিতে চেষ্টা করেছি। আমার অভিজ্ঞতা, সাংগঠনিক এবং আমার ক্রিকেট সম্পর্কে জ্ঞান সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাবে নারী দলে। দলের মধ্যে জয়ের সংস্কৃতি তৈরি করার চেষ্টা করব।”

এর আগেও নারী দলের সঙ্গে কাজ করছেন কোর্টনি ওয়ালশ। এই বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হওয়া নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সঙ্গে ছিলেন তিনি। এমনকি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের নির্বাচক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন টেস্ট ক্রিকেটে ৫১৯ উইকেট পাওয়া এ বোলার।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

Related Articles

দলে ফিরতে পিসিবিকে ‘ব্ল্যাকমেইল’ করছেন আমির!

মালিককে নিয়ে বিস্ফোরক দাবি আফ্রিদির

বল টেম্পারিং কাণ্ডে আবারও প্রশ্নের মুখে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটাররা

আমার স্বপ্ন অনেক বড় : তাসকিন

আল জাজিরার প্রতিবেদনে দুর্নীতির প্রমাণ পায়নি আইসিসি