ক্যাচের জন্য হচ্ছে ‘বিশেষ’ অনুশীলন

0
1543

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে চলছে টাইগারদের এশিয়া কাপের প্রস্তুতি। গতকাল (২৭ আগস্ট) প্রথম দিনে ফিটনেস ট্রেনিং এর পাশাপাশি ফিল্ডিং অনুশীলন করেছেন স্কোয়াডে থাকা ক্রিকেটাররা। এদিকে দ্বিতীয় দিনের বড় অংশ জুড়ে ছিল ক্যাচ অনুশীলন। বাউন্ডারির ক্যাচ নিয়ে হয়েছে বিশেষ প্রস্তুতি। দ্বিতীয় দিনের অনুশীলন শেষে এমনটি জানিয়েছেন মেহেদি হাসান মিরাজ।

মঙ্গলবার (২৮ আগস্ট) টাইগারদের অনুশীলনের প্রথম অংশে ছিল জিম ও রানিং। এরপর ক্যাচ নিয়েই দিন পার করেছেন ক্রিকেটাররা। নানা ভঙ্গিতে ক্যাচ অনুশীলন করা হয়েছে-এক হাতে ক্যাচ, বাউন্ডারি সীমানার ক্যাচ, জাগলিং ক্যাচ।

Advertisment

দ্বিতীয় দিনের অনুশীলন নিয়ে মিরাজ বলেন, “আজ (মঙ্গলবার) আমরা রানিং ও জিমের পাশাপাশি ফিল্ডিং করেছি। এক হাতে ক্যাচ ধরা নিয়েও আলাদা কাজ করা হয়েছে। অনুশীলনে কঠোর পরিশ্রম করলে ম্যাচে কাজটা সহজ হয়ে যায়। এক হাতে যদি সহজেই ক্যাচ ধরতে পারি তাহলে দুই ধরতে আর বেগ পেতে হয় না। সেটাই অনুশীলন করছিলাম আমরা। কঠিনগুলো অনুশীলন করা থাকলে মাঠে কাজটা সহজ হয়ে যায়।”

টাইগারদের ফিল্ডিং নিয়ে সবসময় আলোচনা-সমালোচনা হয়। মাঠে অনেক ক্যাচ ফেলতে দেখা যায় ক্রিকেটারদের। তাই, ক্যাচ মিস রুখতে অনুশীলন কঠিন করা হয়েছে। সেটি জানিয়ে মিরাজ বলেন,  “অনুশীলন যতোটা কঠিন হবে ম্যাচে কাজটা তত সহজ হবে। তাই আমরা অনুশীলনটা কতো কঠিন করা যায় সেই চেষ্টা করছি। আমাদের সামনে তেমন বেশি সময় নেই। এখন যেটুকু সময় পাচ্ছি তাতে কঠিন পরিস্থিতি বানিয়ে অনুশীলন করছি। এই অনুশীলনটা সঠিকভাবে করতে পারলে ম্যাচের সময় কাজটা সহজ হয়ে যাবে। এজন্যই মূলত অমন বিশেষ প্র্যাকটিস করা হচ্ছিল।।”

ক্রিকেটে ১ রানেও জয়-পরাজয় হয়ে থাকে। ফিল্ডিং অনেক সময় ম্যাচের ভাগ্য নিয়ামক হয়ে উঠে। যার ফলে ফিল্ডিংয়ে ভালো করতে কঠোর পরিশ্রম করছে বাংলাদেশ। ফিল্ডিংয়ের গুরুত্ব উল্লেখ করে মিরাজ বলেন, “ক্রিকেটে ব্যাটিং-বোলিং দুটোই গুরুত্বপূর্ণ। তবে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ আপনার ফিল্ডিং। যেকোন ম্যাচে ফিল্ডিং দিয়ে ২০-৩০ রান বাঁচানো গেলে ম্যাচের মোড়ই ঘুরে যায়। দিন শেষে সেই ২০-৩০ রানই ম্যাচের নির্ধারক হয়ে যায়। সেভাবেই আমরা অনুশীলন করছি। ম্যাচের কঠিন পরিস্থিতির কথা ভেবে কঠোর পরিশ্রম করছি।”

[আরও পড়ুনঃ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন হতে চায় বাংলাদেশ]