কনওয়ের ক্যাচ নিয়েই যত আক্ষেপ নাসুমের

0
586

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে নাসুমের বলে শরিফুল ক্যাচ নিয়েও যেন আউট হলেন না নিউজিল্যান্ডের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ডেভন কনওয়ে। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টির আগেই ওই একটি ক্যাচ নিয়েই আক্ষেপে পুড়ছেন নাসুম আহমেদ।

বোলারদের দোষ দিতে নারাজ রিয়াদ নাসুম

Advertisment

ম্যাচ তখনও বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রণে ছিল। সেডন পার্কে ১৪ ওভারে দিয়েছিলেন ১৩৩ রান। অন্যান্য স্টেডিয়ামে এটি অনেক বড় স্কোর হলেও সেডন পার্কে সেটি তেমন কিছুই না। ১৫তম ওভারটি করতে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক বল তুলে দেন ওই দিনের সবচেয়ে সফল বোলার নাসুম। প্রথম চার বলে চারটি রানই আসে কনওয়ে এবং উইল ইয়ংয়ের ব্যাট থেকে।

পঞ্চম বলটি ব্যাট ঘুরিয়ে ডিপ স্কয়ার লেগে মারলে বলটি তালুবন্দী করেন অভিষিক্ত ক্রিকেটার শরিফুল। টিভি আম্পায়ারের সাহায্য নেওয়ার আগেই শরিফুল আঙুল তুলে জানান সেটি আউট। পরবর্তীতে দেখা যায় শরিফুল বল ধরলেও তা পা বাউন্ডারি লাইনে স্পর্শ করেছে! ফলে সেটিকে ছয় হিসেবেই ঘোষণা দেন অন-ফিল্ড আম্পায়ার।

শরিফুলের বলে জীবন পাওয়া সেই কনওয়ে ৪৭ থেকে নিজের ব্যক্তিগত স্কোর নিয়ে যান ৯২ রানে! তার ব্যাটেই বাংলাদেশকে বড় লক্ষ্য দেয় কিউইরা। অন্তত শরিফুলের পা যদি বাউন্ডারি লাইনে স্পর্শ না করতে নিউজিল্যান্ডের দলীয় সংগ্রহ আরও কম হলেও হতে পারত। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টির আগেই সেই আফসোসই করলেন নাসুম।

“আমার কাছে মনে হয় ওই একটা ক্যাচ…. ওই সময় কনওয়ের ৪৭ রান ছিল, ও ইনিংস শেষ করেছে ৯২ রানে। ওই ক্যাচটা হইলে হয়তোবা আরও বিশটা রান কম থাকত। ওই জায়গায় ম্যাচে আমরা পিছিয়ে গিয়েছি।”

কনওয়ে বাদেও প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৩০ বলে ৫৩ রানের ইনিংস খেলেন ইয়ং এবং শেষদিকে ১০ বলে ২৪ রানের ইনিংস খেলেন ফিলিপস। জবাবে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার কারণে ৬৬ রানের জয় পায় নিউজিল্যান্ড।