Scores

কবে ফিরছেন স্মিথ-ওয়ার্নার?

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বল টেম্পারিং ইস্যুতে ১২ মাস করে নিষেধাজ্ঞা পাওয়া দুই অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষের দিকে। শাস্তি ভোগের পর মাঠে ফিরতে দুজনে পাচ্ছেন দারুণ সুযোগ। যেদিন তাদের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হবে, ঠিক সেদিনই হয়ত দুজনকে দেখা যাবে জাতীয় দলের জার্সিতে!

স্মিথ ও ওয়ার্নার
সদ্য সমাপ্ত বিপিএলই ছিল স্মিথ ও ওয়ার্নারের শেষ ক্রিকেটীয় মঞ্চ। ফাইল ছবি

জাতীয় দলের হয়ে খেলার উপর স্মিথ ও ওয়ার্নারের পাওয়া নিষেধাজ্ঞা শুরু হয়েছিল ৩০ মার্চ থেকে, যা শেষ হবে আগামী ২৯ মার্চ। নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার দিন অর্থাৎ ২৯ মার্চই অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের ম্যাচ। ঐদিন আবুধাবিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে মাঠে নামবে অস্ট্রেলিয়া। দেশটির ক্রিকেট সমর্থকরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন- এদিন জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নামবেন দেশটির বর্তমান সময়ের সেরা দুই ক্রিকেট তারকা।

তবে শুধু যে সমর্থকরাই চাইছেন এমনটাই নয়। খোদ অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট অঙ্গনই চাইছে- ২৯ মার্চই দলে ফিরবেন স্মিথ এবং ওয়ার্নার। এই দুই ক্রিকেটার যেদিন থেকে দলে নেই সেদিন থেকেই যেন ক্রিকেটীয় দুর্দশা লেগে আছে। দুঃসময় দূর করার জন্য বিশ্বস্ত দুই সৈনিকের দিকেই তাকিয়ে এখন গোটা অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট অঙ্গন।

তবে ঐ ম্যাচে ওয়ার্নারের ফেরার প্রবল সম্ভাবনা থাকলেও শঙ্কা আছে স্মিথকে নিয়ে। বিপিএল খেলার সময় দুজনই বাঁধিয়েছিলেন কনুইয়ের চোট। সেই চোটের কারণে দুজনকেই আবার যেতে হয়েছিল শল্যবিদের ছুরির নিচে। এরপর ওয়ার্নার দ্রুত সুস্থ হওয়ার পথে থাকলেও স্মিথ ঠিক কবে মাঠে ফিরবেন তা নিশ্চিত নয় এখনও। আর সেক্ষেত্রে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে (নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরের অংশ) তো বটেই, স্মিথ বিশ্বকাপে খেলবেন কি না এ নিয়েও আছে সংশয়।

Also Read - হেরেও অখুশি নন প্রস্তুতি ম্যাচের অধিনায়ক

তবে স্মিথের চোটের অবস্থা সম্পর্কে পুরোপুরি পরিস্কার ধারণা না থাকায় অনেকেরই প্রত্যাশা, হয়ত ২৯ মার্চ পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচেই দেখা যাবে তাকে। তবে সেটি না হলেও এই ম্যাচে যে ওয়ার্নার মাঠে নামবেন, সেটি বলা যাচ্ছে অনেকটা নিশ্চিত করেই!

Related Articles

পন্টিংকে আইপিএলে চান না ওয়ার্ন!

পুরুষদের ম্যাচে আম্পায়ারিং করতে যাচ্ছেন দুই নারী

অস্ট্রেলিয়াকে শেবাগের বিদ্রূপের জবাব দিলেন হেইডেন

কামিন্সের হাতে উঠলো অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরার পুরস্কার

তাই বলে অজিদের এভাবে অপমান!