Scores

করোনাকালে অর্থিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বিসিবি

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বন্ধ আছে বিশ্বের সকল ধরণের খেলাধুলা। যার প্রভাবে স্থগিত রাখা হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট ও ক্রিকেট সম্পর্কিত সকল কার্যক্রম। কোভিড-১৯ এর ধকল কাটিয়ে আবার কবে মাঠে ক্রিকেট ফিরবে তা নিশ্চিত করা বলা কঠিন। তবে নিশ্চয়তা মিলেছে এক জায়গায়, করোনাকালে আর্থিকভাবে বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

ভেন্যু পরিবর্তনের সুযোগ দেখছেন না বিসিবি সভাপতি

২০১৪ সালে টেলিভিশন সম্প্রচার বা ব্রডকাস্ট রাইটের জন্য দরপত্র আহ্বান করে বিসিবি। যেখানে চারটি প্রতিষ্ঠান অংশ নিলেও শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ে টিকে ছিল একটি৷ ফলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিসিবির সম্প্রচার স্বত্ব পায় গাজী টিভি৷ দীর্ঘ ছয় বছরের জন্য ঘরের মাঠে বাংলাদেশের সকলপ্রকার সিরিজ সরাসরি দেখাতে দুই কোটি ২৫ হাজার ডলার খরচ করে প্রতিষ্ঠানটি৷

Also Read - ধোনি অবসর না নেওয়াতে অবাক শোয়েব


দুই পক্ষের এই চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে চলতি মাসেই, অর্থাৎ ৩০ এপ্রিল। এমতাবস্থায় ব্রডকাস্ট রাইটের জন্য নতুন করে আবার দরপত্র আহ্বান করতে হবে টাইগার বোর্ডকে।

একই সাথে এরই মধ্যে শেষ হয়েছে দলীয় স্পন্সের মেয়াদ। যেহেতু প্রতিটি ক্রিকেট বোর্ডেরই রাজস্বের বড় একটি অংশ আসে স্পন্সরদের কাছ থেকে। সেখানে গত জানুয়ারিতে ইউনিলিভারের সাথে স্পন্সরের মেয়াদ শেষ হয় বিসিবির। এরপর নতুন স্পন্সরের জন্য আহ্বান করলেও যথাযথ সাড়া পায়নি বোর্ড।

ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সীমিত ওভারের সিরিজ ও নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সালমা খাতুনদের স্পন্সর হিসেবে দায়িত্ব পায় বেক্সিমকো গ্রুপের প্রতিষ্ঠান আকাশ ডিটিএইচ। তবে তা ছিল অন্তর্বর্তীকালীন।

ফলে নতুন স্পন্সরের খোঁজে নামতে হচ্ছে বিসিবিকে। কিন্তু চলমান করোনাভাইরাস আতঙ্কের জন্য থমকে গেছে বোর্ডের সকল কার্যক্রম। স্পন্সর আর ব্রডকাস্ট রাইট না পাওয়াতে অর্থিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে বিসিবিকে।

এ প্রসঙ্গে বোর্ডের মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘ব্রডকাস্ট রাইট আমরা সম্পন্ন করতে পারিনি। খেলাধুলা নাহলে ব্রডকাস্ট থেকে আমরা যে আর্থিক সুবিধাটা পেতাম সেটা থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। অবশ্যই আমাদের আর্থিক বড় একটা ক্ষতি হচ্ছে।’

‘ক্ষতিতো হবেই এ পরিস্থিতিতে। কিন্তু পরবর্তীতে এই ক্ষতিটা কীভাবে কাটিয়ে উঠবো এসব নিয়ে এখও চিন্তা ভাবনা করিনি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আমরা বসবো।’ সাথে যোগ করেন তিনি।

একই সাথে বন্ধ আছে মাঠের ক্রিকেট। এরই মধ্যে স্থগিত হয়ে গেছে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া সিরিজ ও আয়ারল্যান্ড সফর। সাথে শঙ্কা আছে এশিয়া কাপ এবং আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়েও। সবেমিলে আর্থিক ক্ষতির অংকটা নেহায়েত কম না।

জালাল ইউনুস জানান, ‘আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে এখানে কোন সন্দেহ নেই, বলার অবকাশ রাখেনা। সামনে এশিয়া কাপ ছিল, বিশ্বকাপ ছিল এগুলোও অনিশ্চিত হয়ে গেছে। এখান থেকে আমাদের অনেক বড় আর্থিক সুবিধা পাই। এসব থেকে বঞ্চিত হব কীনা পরে আইসিসির সাথে আলাপ আলোচনা করে জানতে পারবো।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে বিপিএল আয়োজনের চেষ্টা করবে বিসিবি

‘বিসিসিআই কি নরেন্দ্র মোদিকেও পদত্যাগ করতে বলেছে?’

আইপিএল জুড়ে কঠিন বলয়, ‘৫’ দিন পরপর করোনা পরীক্ষা

‘ট্রল’ দুনিয়া ছাপিয়ে সত্যিকারের ‘সুপারহিরো’ মোমিন সাকিব

অনুশীলনে ফিরছেন কোহলিরা, মাস্কে লিখতে হবে নাম