Scores

করোনায় ‘দুরকম’ সময় কোচদের

করোনার প্রকোপে স্থবির গোটা ক্রীড়াঙ্গন। বাংলাদেশে বন্ধ হয়ে আছে সকল প্রকার ক্রিকেট। দীর্ঘদিন ধরে খেলা ছাড়া থাকা যেমন কষ্টকর, তেমনই অর্থনৈতিকভাবেও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন সংশ্লিষ্টরা। দুর্যোগের এই সময়ে ক্রিকেটারদের পাশে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তবে অর্থনৈতিক ইস্যুতে দুরকম অবস্থানে ডিপিএলের কোচেরা।

কোভিড-১৯ এর জেরে বাধ্য হয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে :ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ। ঐতিহ্যবাহী এই টুর্নামেন্ট খেলে সারাবছরের রুটিরুজির জোগান দেন অনেক ক্রিকেটার। ডিপিএল থেক যে টাকা কামান, তা দিয়েই সংসার চলে বোর্ডের চুক্তির বাইরে থাকা কোচদের।

Also Read - ধোনির সাথে ফেদেরারের উদাহরণ দিলেন বালাজি


এক রাউন্ড পর লিগ বন্ধ হওয়ার ফলে বিপাকে পড়া ক্রিকেটারদের পাশে দাঁড়িয়েছে বিসিবি। চুক্তির বাইরে থাকা ঢাকা লিগের ৯৬ ক্রিকেটারকে এককালীন ৩০ হাজার টাকার চেক দিয়েছে বোর্ড। বিসিবির সাহায্য পেয়ে ক্রিকেটারদের স্বস্তি মিললেও বিপাকে আছেন চুক্তির বাইরে থাকা কোচেরা। এখনো পর্যন্ত পারিশ্রমিকের পাশাপাশি বোর্ড থেকেও কোনো অর্থসাহায্য পাননি তারা।

বোর্ডের চুক্তির বাইরে থাকা ডিপিএলের দল লিজেড অব রূপগঞ্জের বোলিং কোচ নাজমুল হোসেন বিডিক্রিকটাইমকে জানান, ‘আমিতো একবছর হলো কোচিংয়ে এসেছি। বিসিবির সাথে এখনো চুক্তিবন্ধ না। আমি যখন এনসিএলের কোচ, যতটুকু কাজ করি, ততটুকু পারিশ্রমিক পাই। এখন প্রিমিয়ার লিগের কোচ, তবে এখনো কোনো টাকাপয়সা পাইনি।’

‘আসলে পরিস্থিতি যেদিকে যাচ্ছে তাতে আগামীতে বসে খাওয়া ছাড়া কোনো রাস্তা নাই। আগামী ২-৩ মাস কি হবে আমরা কিছুই জানি না। আমার কাছে মনে হয় যারা আমরা চুক্তির বাইরে আছি তাদের প্রতি যদি বোর্ড একটু সদয় হয় তাহলে অনেক উপকৃত হবো।’ সাথে যোগ করেন তিনি।

তবে চলমান সংকটে কিছুটা হলেও স্বস্তিতে আছেন বোর্ডের সাথে চুক্তিবদ্ধ কোচেরা। এই প্রসঙ্গে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের হেড কোচ তালহা জুবায়ের বলেন, ‘আমাদের কথা যদি বলেন, আমরা তো বোর্ডের চুক্তিবন্ধ। মাসিক বেতন কিন্তু আমরা পাচ্ছিই।’

পরিস্থিতি কবে নাগাদ স্বাভাবিক হবে, ক্রিকেট আবার কবে মাঠে ফিরবে তা বলা কষ্টকর। চলমান পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত ডিপিএল নিয়ে ভাবতে চাচ্ছেন না তালহা, ‘সারা বিশ্বেই এখন একই রকম অবস্থা। খেলাধুলা সব জায়গায় বন্ধ। এখন জোর করে তো আর কিছু করা যাবে না, জীবনের ঝুঁকি। যখন এই জিনিসটা শেষ হবে, তখন ঝুঁকি মুক্ত হয়ে খেলতে নামাই ভালো হবে।’

নাজমুলের ভবনা, করোনার প্রকোপ কমলে সংক্ষিপ্ত করে হলেও যেন ডিপিএলটা হয়। এতে উপকৃত হবেন সংশ্লিষ্ট সকলে, ‘এমন এক সময় লিগটা বন্ধ হয়েছে যে আমরা আসলেই ভুক্তভোগী। ডিপিএলের দলগুলো মূলত খেলয়াড়দের দেওয়ার পরেই কোচদের পেমেন্ট দেওয়া শুরু করে। এক সপ্তাহ বা ১০ দিন বা ৩ থেকে ৪টি রাউন্ড শেষ হলে আমরা কিছু টাকা পাইতাম।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

করোনা মুক্ত হলেন মাশরাফি

ভারতীয় ক্রিকেটেও আঘাত হানল করোনা

করোনা আক্রান্ত অমিতাভ বচ্চন, আরোগ্য কামনায় ক্রিকেটাররা

রবিবার করোনা পরীক্ষা করাবেন মাশরাফি

ভিন্ন ভূমিকায় খুলছে ইডেন