করোনায় ভারতকে ‘৫০’ হাজার ডলার অনুদান দিলেন কামিন্স

করোনায় টালমাটাল গোটা ভারত। রাজধানী দিল্লীতে লাশের সারি আর স্বজনহারাদের আর্তনাদ। করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার থেকে রাজ্য সরকার- সব মহল। এমন কঠিন পরিস্থিতিতে নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী এগিয়ে এলেন অজি পেসার প্যাট কামিন্স।

আইপিএলে কলকাতার হয়ে খেলছেন কামিন্স। ফাইল ছবি

অস্ট্রেলিয়ার তারকা এই ক্রিকেটার আইপিএলের চতুর্দশ আসরে খেলছেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে। জৈব সুরক্ষা বলয়ে থেকে খেলা চালিয়ে গেলেও কামিন্সকে বিষণ্ণ করে তুলেছে বলয়ের বাইরের করোনা পরিস্থিতি। এমন পরিস্থিতিতে তিনি ৫০ হাজার ডলার বা ৪২ লাখ টাকার বেশি অনুদান দিয়েছেন ভারতের করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় গঠিত ফান্ডে।

Advertisment

এক টুইট বার্তায় কামিন্স নিজেই বিষয়টি জানিয়েছেন। কামিন্স তার সতীর্থদেরও এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। আইপিএল খেলতে বিশ্বের নামীদামী এক ঝাঁক ক্রিকেটার বর্তমানে ভারতে অবস্থান করছেন।

কামিন্স বলেন, ‘খেলোয়াড় হিসেবে আইপিএলের মত প্ল্যাটফর্ম পেয়ে আমরা গর্বিত যা আমাদের লাখ লাখ সমর্থকের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে। সেই ভাবনা থেকে আমি ভারতের প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে কিছু অনুদান দিচ্ছি, বিশেষ করে হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেনের ঘাটতি দূর করার জন্য। আমি অন্যান্য আইপিএল খেলোয়াড় ও ভারতের আবেগ ও উদারতায় মুগ্ধ বাকি সবাইকেই উৎসাহ দিচ্ছি, আসুন আমরা এগিয়ে আসি। আমি শুরু করলাম ৫০ হাজার ডলার অনুদান দিয়ে।’

করোনা মহামারীর করাল গ্রাস একদিকে, অন্যদিকে চলছে আইপিএল। এ নিয়ে অনেক সমালোচনা হলেও কামিন্স আইপিএল চালিয়ে যাওয়ার পক্ষে। কামিন্স আরও বলেন, ‘ভারত এমন একটি দেশ যেখানে বারবার আসতে ভালো লাগে আর এখানকার মানুষ আমার দেখা অন্যতম আন্তরিক ও অতিথিপরায়ণ। এখানকার অনেক মানুষ করোনা মহামারীতে ভুগছেন জেনে আমি আহত। এই পরিস্থিতিতে আইপিএল চালিয়ে যাওয়া ঠিক হচ্ছে কি না এ নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে। আমি বলতে চাই, এই কঠিন সময়ে আইপিএল হতে পারে কিছু সময়ের বিনোদন।’

আইপিএল খেলে বিশ্বের বাঘা বাঘা ক্রিকেটাররা মোটা অঙ্কের অর্থ উপার্জন করেন। কামিন্সের আহ্বানে সাড়া দিয়ে তারা এবার ভারতের দুর্দিনে এগিয়ে আসবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।