Scores

করোনা ঠেকাতে ধোনির ছক্কাকে হাতিয়ার করলো মুম্বাই পুলিশ

সচেতনতায় বরাবরই ব্যতিক্রমী ভারতীয় পুলিশ। চলমান করোনাভাইরাস মোকাবিলায় এবারও নানান ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে তাদের। তারই অংশ হিসেবে কোভিড-১৯ থেকে নাগরিকদের সচেতন করতে মহেন্দ্র সিং ধোনির ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালে হাঁকানো ঐতিহাসিক ছক্কাকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে মুম্বাই পুলিশ।

করোনা ঠেকাতে ধোনির ছক্কাকে হাতিয়ার করলো মুম্বাই পুলিশ

প্রতিদিনই বেড়ে চলেছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বিশ্বজুড়ে মহামারি রূপ নেওয়া এই ভাইরাসের সংক্রমণে গোটা বিশ্বে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে প্রায় ৫৭ হাজারের মত। আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লাখ ৭৫ হাজারের উপরে।

Also Read - সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা দেবে মাশরাফির ফাউন্ডেশন







গোটা বিশ্বের মতই করোনাভাইরাস গ্রাস করেছে ভারতকে। যার ফলে দেশটিতে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। তবুও এখনো পর্যন্ত ভারতে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ২৫০০ ছাড়িয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৭২ জন প্রাণ হারিয়েছেন।

এমতাবস্থায় জনসাধারণকে রাস্তায় না বেরিয়ে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে প্রতিনিয়ত। তবুও এই নিয়ম লঙ্ঘন করে বিপদ বাড়াচ্ছেন অনেকেই। তাদেরকে বার্তা দিতেই এবার মুম্বাই পুলিশ হাতিয়ার করলো ধোনির বিশ্বকাপজয়ী ছক্কাকে।





২০১১ সালের ২ এপ্রিল ভারত ২৮ বছর পর বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। সেই জয়েরই নবম বর্ষপূর্তি ছিল বৃহস্পতিবার। আর সেই দিনেই নাগরিকদের অভিনব বার্তায় ঘরবন্দী থাকার পরামর্শ দিয়ে ধোনির ছক্কার ছবি শেয়ার করে মুম্বাই পুলিশ।

ধোনির ছক্কা মারার দুটি ছবি পাশাপাশি দিয়ে নিজেদের টুইটার অ্যাকাউন্টে টুইট করে মুম্বাই পুলিশ। যেখানে বাঁপাশে অর্থাৎ ২ এপ্রিল ২০১১ লেখা ছবিটার সাথে ক্যাপশন হিসেবে উল্লেখ করে, ভারত যতক্ষন না টার্গেটে পৌঁছেছিল, ততক্ষণ আমরা বাড়িতে বসেছিলাম।’

ডানদিকের ছবিটিও ধোনির সেই ট্রেডমার্ক ছয় মারার দৃশ্য। তবে ফারাক বলতে বলের পরিবর্তে এখানে ব্যবহার করা হয়েছে প্রাণঘাতী ভাইরাসের প্রতিকৃতি। ২ এপ্রিল ২০২০ তারিখের এই ছবিটিতে লেখা হয়েছে, ‘আমরা বাড়িতেই বসে আছি যতক্ষণ না ভারত টার্গেটে পৌঁছাতে পারে।’

প্রসঙ্গত, ক্রিকেট নিয়ে ভারতীয় পুলিশের এমন প্রচারণা অবশ্য এবারই প্রথম নয়। এর আগে গত আইপিএল চলার সময় অশ্বিনের বিতর্কিত ম্যানক্যাড ঘটনাটি বিজ্ঞাপন হিসেবে ব্যবহার করেছিল তারা। যেখানে লিখেছিলো ‘ক্রিজে হোক বা রাস্তায়, আগে বের হলে পস্তায়।’

তারও আগে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে পূজারার বুক চিতিয়ে লড়াই করাকে তারা নিয়েছিলো অনুপ্রেরণা হিসেবে। সেবার কলকাতা পুলিশ তাদের স্লোগানে উল্লেখ করে, ‘ডিফেন্স হোক পূজারার মত।’ এছাড়াও অজিদের মাটিতে দুর্দান্ত খেলে টেস্ট সিরিজ জয় করাকে তারা প্রেরণা হিসেবে নিয়ে ঠাঁই দিয়েছিলো নিজেদের স্লোগানে, ভারত জিতুক ক্রিকেট মাঠে, আইন জিতুক রাস্তা-ঘাটে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

‘ক্রিকেট ম্যাচগুলো সব চলচ্চিত্র, মাফিয়ারা নিয়ন্ত্রণ করে’

রোনালদো-মেসির আয় কমলেও বেড়েছে কোহলির

ধোনির জন্য বিশ্বকাপ ফাইনালে ‘দুইবার’ টস করতে হয়

ক্রিকইনফোর ‘ড্রিম টিম’ এ সাকিব আল হাসান

শচীনের থেকে লারাকে এগিয়ে রাখেন রফিক