করোনা পরিস্থিতির ওপর ঝুলছে বিপিএলের ভাগ্য

করোনা মহামারীর কারণে গত মৌসুমে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) অনুষ্ঠিত হয়নি। এ মৌসুমেও মাঠে গড়ানো অনিশ্চিত। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) বিপিএলের সূচি খালি রাখলেও ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগটির ভবিষ্যৎ নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির ওপর।

বিপিএলসহ ঘরোয়া সব টুর্নামেন্টের সূচি তৈরি করছে বিসিবি

Advertisment

বিপিএলের সর্বশেষ আসর শেষ হয়েছিল ২০২০ সালের জানু্যারিতে। ২০২২ সালের জানুয়ারিতে বিপিএলের পরবর্তী আসর আয়োজন করতে চায় বিসিবি। তবে সেক্ষেত্রে বেশ গুরুত্বপূর্ণ বিদেশি ক্রিকেটারদের অংশগ্রহণ।

যদিও বিদেশিদের অংশগ্রহণ নির্ভর করছে তখনকার করোনা পরিস্থিতির ওপর। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন তাই বিপিএলের ভবিষ্যৎ ছেড়ে দিলেন সময়ের হাতে।

তিনি বলেন, ‘প্রথম কথা হচ্ছে স্লট। খেলার সময় আছে কি না। আমি শুধু এটুকুই বলতে পারি- বিপিএলের স্লট আছে। এত আগে কিছু বলার উপায় নেই।’

ডেলটা ভ্যারিয়েন্টের তাণ্ডব সামলে বাংলাদেশ এখন প্রায় সবকিছুই স্বাভাবিক হয়ে উঠেছে। তাও কেন করোনা নিয়ে শঙ্কা, তা খোলাসা করলেন পাপন।

তিনি বলেন, ‘যেসব দেশ করোনার দিক দিয়ে নিরাপদ মনে করেছিল, তারা এখন দ্বিতীয়, তৃতীয় হয়ে চতুর্থ ঢেউ সামলাচ্ছে। সামনে কী পরিস্থিতি হবে আমরা কেউ জানি না। পরিস্থিতির ওপর সবকিছু নির্ভর করছে।’

গত মৌসুমে দেশি ক্রিকেটারদের নিয়ে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ আয়োজন করেছিল বিসিবি, যা হয়েছিল অনেকটা বিপিএলের আদলে। বিদেশি ক্রিকেটারদের পাওয়া না গেলে অন্তত এই টুর্নামেন্ট আবার আয়োজন করতে পারবে বিসিবি।

পাপন বলেন, ‘আমরা তো খেলতেই পারি। কিন্তু বাইরে থেকে যদি ভালো খেলোয়াড় না আনতে পারি তাহলে তো এটাকে বিপিএল বলা যাবে না। আমরা নিজেদের মধ্যে টুর্নামেন্ট করতে পারব। আমাদের জায়গা রাখা আছে, পরিকল্পনা আছে। পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করছে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।