Scores

করোনা প্রতিরোধে আমার একটা দায়িত্ব আছে : পাপন

করোনাভাইরাসে থমকে আছে গোটা দেশ। ক্রিকেট মাঠে নেই, সবাই ব্যস্ত ভাইরাস দূরীকরণে। এমন পরিস্থিতিতে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে নিজের অবস্থান থেকে সাধ্যানুযায়ী কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি ও বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

করোনা প্রতিরোধে আমার একটা দায়িত্ব আছে পাপন

করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক এখনো আবিষ্কৃত না হওয়ায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর আছে মৃত্যুঝুঁকিও। সঠিক সময়ে সঠিক চিকিৎসাই পারে আক্রান্তদের সুস্থ করে তুলতে। সেজন্য ওষুধের মত অত্যন্ত প্রয়োজনীয় চিকিৎসক ও সেবকদের নিরাপত্তার উপকরণ।

Also Read - ইংল্যান্ডকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ






তবে বাংলাদেশে ঘাটতি রয়েছে এসবের। অন্তত মহামারি করোনাভাইরাসের সময়ে ঘাটতি হওয়া অস্বাভাবিক নয়। তবে এই চাহিদা মোকাবেলায় কাজ করবেন বলে জানিয়ে নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ‘আমি বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতির সভাপতি। আমার একটা দায়িত্ব আছে। গত ১৫ দিন ধরে এটা নিয়েই কাজ করছি। ব্যক্তিগতভাবে বা সমিতি থেকে যা যা করনীয় আমরা করছি। নিয়মিত সরকারের সাথে যোগাযোগ করছি- কী কী ওষুধ লাগবে বা লাগতে পারে, কোন ওষুধ এই চিকিৎসায় ব্যবহৃত হচ্ছে… কিছু ওষুধ আছে যার কাঁচামাল বিদেশ থেকে আনতে হবে। প্রটেকটিভ গিয়ারস নিয়েও কাজ করছি, যেটা নিয়ে এত হুলুস্থুল হচ্ছে।’

করোনাভাইরাস শনাক্ত ও চিকিৎসার প্রয়োজনীয় উপকরণ এনে বিনামূল্যেই বিতরণ করবেন জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আজকেও সরকারের সাথে আমাদের সভা আছে। কাল-পরশু বিদেশি সংস্থার সাথে আমার মিটিং আছে। আমরা কাজ করছি। সময় এসেছে ব্যাপারটাকে আরও গুরুত্বের সাথে নেওয়ার। বিভিন্ন জায়গায় আমি যোগাযোগ করেছি। কিট এনে দিতে চাই, এ ব্যাপারে কথা বলেছি।’






পাপনের দাবি, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এসব উপাদানের ঘাটতি দেখা দিবে তা সংশ্লিষ্ট অনেকেই ভাবেননি। এর পেছনের সম্ভাব্য কারণ ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ‘বলেছিলাম প্রটেকটিভ ইকুউইপমেন্ট এনে দিতে পারি, কতগুলো লাগবে। সবাই বলেছে দরকার নেই। আমার ধারণা ছিল পর্যাপ্ত আছে। এখন মনে হচ্ছে উনারা ভেবেছিলেন বা আশ্বাস পেয়েছেন কোথাও থেকে আসার বা একটা কিছু হতে পারে। এগুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে। আজকে থেকে আরও বেশি হচ্ছে। আমরাও প্রাইভেট সেক্টর থেকে চেষ্টা করেছি ও করছি।’

‘লাগুক না লাগুক, আমরা ইমপোর্ট করছি। এগুলো তো বিক্রির জন্য আনছি না। যাই আনা হবে সব অনুদান করা হবে। আমার এলাকার ডিসি ইউএনওকে বলেছি- কী কী লাগবে তালিকা করুন। সরকার যা দিচ্ছে ভালো, আমিও আপনাদের সাহায্য করতে চাই।’– বলেন তিনি।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

‘সাফল্যের কোনও শর্টকাট পথ হয় না’

বিসিবি কর্মীদের সাহায্যে হাত বাড়ালেন ভেট্টোরি

ঝুলে থাকল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভবিষ্যৎ

করোনা পরবর্তী ক্রিকেট নিয়ে রিয়াদের ভাবনা

সেই চেনা দৃশ্যের অপেক্ষায়