Scores

কলাবাগানকে ১৫ রানে হারিয়েছে খেলাঘর

চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে কলাবাগান ক্রীড়া চক্রকে ১৫ রানে হারিয়েছে খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি।

DPL LOGO

বুধবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পরে খেলাঘর। দলীয় ৪ রানেই সাজঘরে ফেরেন ওপেনার সাদিকুর রহমান। এরপর আরেক ওপেনার রবিউল ইসলাম রবিকে নিয়ে দলের হাল ধরেন মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন। তবে ব্যক্তিগত ২৫ রানে অঙ্কনের বিদায়ের পর ২১ রান করে সাজঘরে ফেরেন রবিও। তবে তাতেও হাল ছাড়েনি খেলাঘর। অশোক মেনারিয়াকে সঙ্গে নিয়ে দেখেশুনে খেলতে থাকেন অমিত মজুমদার। ৪২ রান করে অমিত বিদায় নিলেও ইনিংস বড় করেন অশোক। ৯৫ রান করে সেঞ্চুরি থেকে একটু দূরে থাকতে শেষ হয় তার দুর্দান্ত ইনিংস। শেষদিকে মাসুম খানের ১৮ ও আনজুম আহমেদের অপরাজিত ১৩ রানের ইনিংসে ভর করে সম্মানজনক সংগ্রহ পায় খেলাঘর। ইনিংসের শেষ বলে অলআউট হওয়ার আগে দলটির সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৩৮ রান।

Also Read - চার মাসে 'এ' দলের তিনটি সিরিজ


জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতে খেই হারায় কলাবাগানও। তবে একের পর এক উইকেট হারিয়ে মুহূর্তেই ব্যাকফুটে চলে যায় দলটি। দলীয় ২ রানে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় উইকেট হারানোর পর দলটি চতুর্থ ও পঞ্চম উইকেট হারায় যথাক্রমে ৫ ও ১৪ রানে। এরপর দলের বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন তাইবুর রহমান। যদিও অপর প্রান্তে ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়া ছিল অব্যাহত। সপ্তম উইকেটের পতনের পর তাইবুরকে যোগ্য সঙ্গ দেন আবুল হাসান রাজু। যদিও তাইবুরের ৮১ এবং রাজুর ৭৬ রানের ইনিংস দলের জয় এনে দিতে পারেনি। শেষদিকে সঞ্জিত সাহার ৩১ রান দলের পরাজয়ের ব্যবধানই কমায় শুধু। নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারানো কলাবাগানের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২২৩ রান।

কলাবাগানের পক্ষে রাহাতুল ফেরদৌস এবং খেলাঘরের পক্ষে হাসান মাহমুদ শিকার করেন তিনটি করে উইকেট। অশোক মেনারিয়া নির্বাচিত হন ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

খেলাঘর ২৩৮ (মেনারিয়া ৯৫, অমিত ৪২; রাহাতুল ৪৪/৩)

কলাবাগান ২২৩/৯ (তাইবুর ৮১, রাজু ৭৬; হাসান ৪৭/৩)

ফল- খেলাঘর ১৫ রানে জয়ী।

আরও পড়ুনঃ তবুও নিদাহাস ট্রফিতে নিশ্চিত নন সাকিব

Related Articles

পারিশ্রমিক না পেয়ে বিসিবির শরণাপন্ন কলাবাগানের ক্রিকেটাররা

কলাবাগানের তিন ক্রিকেটারকে পারিশ্রমিক না দেয়ার অভিযোগ

মিজানুরে ম্লান আশরাফুলের ‘রেকর্ড’ শতক

আশরাফুলের ‘বিরল’ রেকর্ড

আশরাফুলের টানা তৃতীয় শতক