Scores

কাজলের পরিবারের পাশে তামিম

বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা এই করোনাকালে আর্থিক সহয়তা নিয়ে দাঁড়াচ্ছেন মানুষের পাশে। শুধু অসহায়- দুস্থ নয়, এই করোনাভাইরাসের সময়ে কাজ হারিয়ে আয়ের উৎস বন্ধ হয়ে যাওয়া বিভিন্ন খেলার ক্রীড়াবিদদের পাশেও দাঁড়িয়েছেন তামিম ইকবাল। এবার তামিমের আরেকটা মহৎ উদ্যোগে আকস্মিক মৃত্যুবরণ করা এক ঘরোয়া ক্রিকেটারের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে জাতীয় ক্রিকেটাররা।

বড় অনুদান নিয়ে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে তামিম

খুলনা জেলা দলের অধিনায়ক ছিলেন কাজী রিয়াজুল ইসলাম কাজল। ছিলেন ঢাকা লিগের পরিচিত মুখ। এছাড়া খুলনার বয়রার একটা ক্রিকেট একাডেমি ‘তরুণ সংঘের’ কোচ হিসাবেও ওই এলাকা থেকে উঠে আসা ক্রিকেটারদের প্রশিক্ষণ দিতেন তিনি। ৩২ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার গত বুধবার রাতে হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যুবরণ করেন।

Also Read - বিসিবি কর্মীদের সাহায্যে হাত বাড়ালেন ভেট্টোরি


জাতীয় দলের ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের সাথে ছিল তার সখ্যতা। বাগেরহাটে তারা একই সাথে ক্রিকেট খেলতেন। বাগেরহাট থেকে ঢাকা লিগ পর্যন্তও তারা গিয়েছেন একসাথে। কাজলের এই আকস্মিক মৃত্যুতে ব্যথিত রুবেল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বন্ধুর মৃত্যুর খবর জানিয়ে স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন। সেই থেকেই কথাটা কানে পৌঁছায় তামিমের।

রুবেলের সাথে যোগাযোগ করে কাজলের পরিবারের সহয়তায় এগিয়ে যাওয়ার উদ্যোগ নেন বাংলাদেশের নব নির্বাচিত ওয়ানডে অধিনায়ক। তামিম ও রুবেলের সাথে সাথে জাতীয় দলের আরও কয়েকজন সদস্য কাজলের পরিবারের সহায়তায় হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। তাছাড়া সাবেক ক্রিকেটার, সংগঠক ও ক্লাব মালিকরাও এখানে অবদান রেখেছেন। রুবেল সেই সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন কাজলের স্ত্রীর কাছে।

এই সম্পর্কে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিস্তারিত জানিয়েছেন পেসার রুবেল, ‘আপনারা জানেন, শ্বাসকষ্টের কারণে আকষ্মিকভাবে মৃত্যুবরণ করেছেন খুলনার সুপরিচিত ক্রিকেটার কাজল। তার সঙ্গে আমার অনেক স্মৃতি রয়েছে। দীর্ঘদিন আমরা একসঙ্গে বাগেরহাট থেকে শুরু করে ঢাকা লিগে খেলেছি। কাজলের মৃত্যু নিয়ে আমার ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট দিয়েছিলাম। তা দেখেই তামিম ভাই আমাকে ফোন দিয়েছিলেন।’

‘কাজলের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোটা আমাদের সবার নৈতিক দায়িত্বও বটে। আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন না, কাজলের পরিবারে উপার্জনক্ষম ব্যক্তি বলতে একমাত্র সে-ই ছিল। তার বাবা নেই। চার বছরের ছোট্ট একটি কন্যা শিশু রয়েছে। বুঝতেই পারছেন, অকালে স্বামীকে হারিয়ে দিশেহারা কাজলের স্ত্রী! তামিম ভাই ফোন দিয়ে আমার কাছে কাজলের পরিবার সম্পর্কে খোঁজখবর নেওয়ার পর তাৎক্ষনিকভাবে তাদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন। এরই প্রেক্ষিতে আজ কাজলের স্ত্রীর কাছে আমি আর্থিক সহায়তা পৌঁছে দিয়েছি। মানসিক ভাবে অনেক শান্তি লাগছে।’

‘আমার পোস্ট দেখে যেমন একজন তামিম ইকবাল এগিয়ে এসেছেন। ঠিক তেমনি আমার বিশ্বাস পুনরায় আমার এই পোস্ট দেখে, সাবেক ক্রিকেটার, সংগঠক কিংবা ক্লাবের মালিকরাও কাজলের পরিবারের সাহায্যে এগিয়ে আসবেন।’

‘আবারও তামিম ভাইয়ের পাশাপাশি এই ফান্ডে আমার জাতীয় দলের সতীর্থ যে সব ক্রিকেটারের আর্থিক অনুদান রয়েছে তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

ক্রিকেটার ও তরুণ প্রশিক্ষক কাজলের আকস্মিক মৃত্যু