Scores

কারা যোগ দিবেন সাইফউদ্দিন-মিরাজদের দলে?

অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল জিতে ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ভারত। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ড লড়াই করবে ফাইনালে জায়গা পাওয়া যাওয়ার জন্য বৃহস্পতিবার । এটি বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ দলের দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলা।

সেমিতে পারফরম্যান্স করে কারা যোগ দিবেন সাইফ মিরাজদের দলে?

অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে মিরাজ ও সাইফ।

Also Read - জন্মদিনে হাসপাতালে ভর্তি লেম্যান


শেষ ২০১৬ সালে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলেছিল বাংলাদেশ । সেই সেমিফাইনালে ফেভারিট হওয়ার পরও বাংলাদেশ হারে। পরবর্তীতে  তৃতীয়স্থান নির্ধারণী ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে বিশ্বকাপে নিজেদের সর্বোচ্চ সাফল্য পায় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ দল।

এখনো পর্যন্ত ২০১৬ সালের সেই সেমিফাইনাল অনূর্ধ্ব ১৯ লেভেলের বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ম্যাচ। ঐ ম্যাচে সবচেয়ে ভালো পারফরম্যান্স করেন দুই অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজ ও সাইফুদ্দিন। দলের বিপর্যয়ে বড় জুটি গড়েন তারা। মিরাজ সেই ম্যাচে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৬০ রান করেন। সাইফউদ্দিন করেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৬ রান।

বোলিংয়েও ভালো করেন এই দুই অলরাউন্ডার। মিরাজ ও সাইফউদ্দিন দুইজনই ২ উইকেট করে নেন। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ ম্যাচটি হেরে গেলেও মিরাজ ও সাইফউদ্দিনের পারফরম্যান্স ভক্তদের প্রশংসা কুড়ায় সেই ম্যাচে। বিশ্বকাপ না জিতলেও আসরে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মেহেদি হাসান মিরাজ। যার পুরষ্কার স্বরূপ প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে জিতেন আইসিসির কোনো বিশ্বকাপে আসর সেরার পুরস্কার।

মিরাজ-সাইফউদ্দিনের সেমিফাইনালের সেই বড় মঞ্চে ভালো পারফরম্যান্স জাতীয় দলে তাদের আসার পথ সুগম করে দেয়। ৩ বছর পর ২০১৯ সালে আইসিসি বিশ্বকাপে দুইজনই জাতীয় দলের হয়ে খেলেন ইংল্যান্ডে। দুইজনের পারফরম্যান্স খারাপ ছিলনা প্রথম বিশ্বকাপ হিসেবে সিনিয়র লেভেলে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এইবারের সেমিফাইনালে বর্তমান যুবাদেরও হয়তো লক্ষ্য থাকবে মিরাজ, সাইফউদ্দিনদের মতো অনূর্ধ্ব ১৯ লেভেলের বড় মঞ্চে পারফরম্যান্স করে নিজেদের জাতীয় দলে ভবিষ্যতে আসার পথ সুগম করা। ৩ বছর বাকি এখনো ভারতে পরের ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের। তখন এই যুবাদের বয়স হবে ২২-২৩ বছর। এই লেভেলের বড় ম্যাচে পারফরম্যান্স দেখাতে পারলে ও পরবর্তীতে ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে এই দলের কয়েকজনকেই হয়তো ২০২৩ সালের পরবর্তী বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলে দেখা যেতে পারে।

ব্যাটসম্যানদের মাঝে সবচাইতে উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করা তৌহিদ হৃদয়, তানজিদ হাসান তামিম ও মাহমুদুল হাসান জয়ের। কোয়ার্টার ফাইনালে পারফরম্যান্স করা শামিমও এই দৌড়ে পিছিয়ে থাকবেন না সেমিতে ভালো করলে। বোলারদের মাঝে শরিফুল ইসলাম, তানজিম হাসান সাকিব ও কোয়ার্টার ফাইনালের নায়ক রাকিবুল হাসানের নামও উঠে আসবে সবার আগে। জয় হার যাই হোক ভক্তদের নজর থাকবে কে এই ব্যাচ থেকে বড় মঞ্চে পারফরম্যান্স করে পরবর্তী পর্যায়ের জন্য নিজের দাবি আগে রাখতে পারে।

 

Related Articles

বিশ্বকাপজয়ী অনূর্ধ্ব-১৯ দলের নতুন স্কোয়াড ঘোষণা

করোনায় যুবাদের ছন্দভঙ্গ, মৃত্যুঞ্জয়ের চোট-পুনর্বাসন বাড়িতেই

বিশ্বকাপজয়ী যুবাদের জন্য বিসিবির ২৫ লক্ষ টাকার পুরস্কার ঘোষণা

বিশ্বকাপজয়ী যুবাদের প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা দেওয়ার দিনক্ষণ চূড়ান্ত

আকবর-ইমনদের লাখ টাকা পুরষ্কার বিকেএসপির