“কিছুটা সত্যি কথা আশা করেছিলাম”

দেশের মাটিতে হওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে স্কোয়াড থেকে বাদ দেওয়া হয় পেসার মাশরাফি বিন মুর্তজাকে। বিসিবির নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানিয়েছিলেন বিসিবির দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনায় নেই মাশরাফি এবং বাদ দেওয়ার বিষয়ে তার সাথে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু মাশরাফি দাবি করেছেন এ বিষয়ে তাদের মাঝে কোনো আলাপ হয়নি।

"কিছুটা সত্যি কথা আশা করেছিলাম"
একাত্তর টিভির খেলাযোগকে এক দীর্ঘ সাক্ষাৎকার দিয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। এ সাক্ষাৎকারটির প্রথম পর্ব প্রচারিত হয় সোমবার।
মাশরাফি বলেন, “নান্নু ভাইয়ের সাথে আমার কথা হয়েছিল, কিন্তু এসব কিছু না। এর চেয়ে বেশি ডিটেলসে যাব না। এতটুকুই বলছি যে কিছুটা সত্যি কথা আমি আশা করেছিলাম। পুরো সত্যি না বলত, কিছুটা সত্যি কথা আমি আশা করতেই পারি।” 

নান্নু জানিয়েছিলেন ২০২৩ বিশ্বকাপ নিয়ে এখন থেকে ভাবছে বিসিবি। সেই ভাবনার বাইরে আছেন মাশরাফি। বাদ পড়ার ব্যাপারে কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর সাথেও আলাপ হয়নি বলে জানিয়েছেন নড়াইল এক্সপ্রেস। বিশ্বকাপে নিজের নিস্প্রভ  পারফরম্যান্সের পর নিজেও দলে জায়গা আশা করেননি। তবে মাশরাফি চেয়েছিলেন তাকে দলে রাখা বা না রাখার সিদ্ধান্তটা যেন আগেই জানানো হয়।

Advertisment

মাশরাফি বলেন, “রাসেল ডমিঙ্গোর সাথে আমার এই বিষয়ে কথা হয়নি। রাসেল ডমিঙ্গো আমাকে এক কাপ কফির অফার দিয়ে রেখেছিল। আমি সেই অফারের জন্য এখনো অপেক্ষা করছি। সে আমাকে অফারটা দিয়েছিল পাকিস্তান সিরিজের আগে। তখন তার সাথে আমার কথা হয়েছিল, ক্রিকেট বোর্ডে ডেকেছিল। আকরাম ভাইরা ছিলেন ঐ রুমে।

“তখন ও আমাকে একটা কথা বলেছিল, দেখো তুমি সিনিয়র খেলোয়াড়।  তারপর আমাকে বলছিল, ‘তোমার প্লান কী?’  আমি বলেছিলাম ‘আমি যা ওয়ার্ল্ডকাপে যা পারফরম্যান্স করেছি, আমি প্রত্যাশা করছি না। কিন্তু আমি জানিনা তোমার কি প্লান আছে। তোমার যেটাই প্লান থাকুক আমাকে আগে জানিও। বাদ দিলেও আগে জানিও, নিলেও আগে জানিও। দুটোর জন্যই আমার মানসিক প্রস্তুতির দরকার আছে। তারপর আর কথা হয়নি। ”