Scores

কোচদের কথায় বারবার নিজেকে বদলেছেন ইমরুল

ইমরুল কায়েসের বিরুদ্ধে অনেকের অনুযোগ- সীমিত ওভারের ক্রিকেটে তিনি দাবি মিটিয়ে ব্যাট করতে পারেন না। কেউ কেউ তার নামের পাশে সাঁটিয়ে দিয়েছেন টেস্ট স্পেশালিষ্ট ব্যাটসম্যানের তকমা, যদিও সাদা পোশাকেও দেশের হয়ে নিয়মিত খেলার সুযোগ হয় না। বারবার দলে আসা-যাওয়ার মধ্যে ব্যস্ত থাকা ইমরুল জানিয়েছেন, কোচদের বাধ্য শিষ্য হিসেবে কীভাবে তিনি বারবার বদলেছেন নিজেকে। 

কোচদের কথায় বারবার নিজেকে বদলেছেন ইমরুল

বাংলাদেশের অভাগা ক্রিকেটারদের তালিকা করলে তার নাম থাকবে উপরে। একবার তো এমনও বলেছিলেন- তার ব্যাগ নাকি গোছানোই থাকে, কখন যে দলে ডাক পেয়ে বসেন! সেই ইমরুল দলের প্রয়োজনে কোচদের কথা মেনে বারবার বদলেছেন নিজের ব্যাটিং শৈলী। নিজেকে ধীরগতির ব্যাটসম্যান হিসেবে মেনে নিতে নারাজ এই ওপেনার।

Also Read - সাফল্যকে নয়, ক্রিকেট ও ক্রিকেটারদের ভালোবাসুন : সমর্থকদের ইমরুল






সর্বশেষ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ইমরুলের ব্যাটিং ছিল প্রশংসনীয়। সেই প্রসঙ্গে ‘মারমুখী হওয়ার চেষ্টা করছেন’ বলতেই ইমরুলের আপত্তি। বিডিক্রিকটাইমকে তিনি বলেন, ‘প্রত্যেক ব্যাটসম্যানই চাইলে কমবেশি মারতে পারে। কারও সামর্থ্য কম, কারও বেশি। কারও মানসিক ব্যাপার থাকে- মারতে পারে কিন্তু মারতে চায় না। আমি যখন জাতীয় দলে আসি তখন অনেক আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যান ছিলাম। দেখেছেনও আপনারা, যখন ২০০৭-০৮ এর দিকে প্রিমিয়ার লিগে খেলি। জাতীয় দলে আসার পর আমাকে বলা হল উইকেটে বেশিক্ষণ থাকতে, দীর্ঘক্ষণ ব্যাটিং, তামিমের সাথে বড় পার্টনারশিপ। এভাবে খেলতে খেলতে একটা সময় তকমা লেগে গেল- আমি নাকি টেস্ট খেলোয়াড়। জেমি সিডন্স আমাকে এই ভূমিকা দিয়েছিল। মানুষের এটা বোঝা উচিৎ- কেন এমন খেলেছি।’

জেমি সিডন্সই মূলত ইমরুলকে ধীরগতিতে খেলতে অভ্যস্ত করেন। একসময়ের মারমুখী ব্যাটসম্যান ইমরুলের সেই ভূমিকায় আবার পরিবর্তন আনেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে, ২০১৫ বিশ্বকাপের পর।






ইমরুল বলেন, ‘২০১৫ এর পর যতবারই ওয়ানডে খেলেছি, স্ট্রাইক রেট ভালো ছিল। বিশ্বকাপের পর হাথুরুসিংহে আমাকে বলে, জাতীয় দলে খেলতে হলে স্ট্রাইক রেট ৯০ এর উপরে থাকতে হবে। নতুন ভূমিকা দেওয়ার পর প্রায় সব ম্যাচেই আমার স্ট্রাইক রেট ৯০ এর বেশি। আমি তার কথামত খেলার চেষ্টা করেছি।’

‘একটা জিনিস আপনি পারেন না, এটা এক কথা। আরেকটা হল আপনি পারেন, তবুও নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করেন। অনেক স্বার্থে, অনেক কারণে আমি ভূমিকায় পরিবর্তন এনেছি।’– বলেন ইমরুল।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

অনেকেই সমর্থন পেয়ে জাতীয় দলে থেকে যান: ইমরুল

সালমান-রল্টনের সাথে ডিনার করতে চান ইমরুল

সাফল্যকে নয়, ক্রিকেট ও ক্রিকেটারদের ভালোবাসুন : সমর্থকদের ইমরুল

ক্ষমার বিরল দৃষ্টান্ত গড়লেন ইমরুল

কোহলির সাথে বন্ধুত্বের গল্প শোনালেন ইমরুল