‘পরামর্শক’ ক্রেমার লড়বেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই

কয়েক মাস আগেও গ্রায়েম ক্রেমার ছিলেন জিম্বাবুয়ে জাতীয় দলের অধিনায়ক। অথচ মাত্র কয়েক মাসের ব্যবধানেই তিনি হয়ে যাচ্ছেন নিজের দেশের জাতীয় দলটির প্রতিপক্ষ!

‘কোচ’ ক্রেমার লড়বেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই

আগামী ১০ এপ্রিল থেকে শুরু হবে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে ও সফরকারী আরব আমিরাতের মধ্যকার চার ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ। ঐ সিরিজের আগে ক্রেমারকে দলের পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে আরব আমিরাত। ফলে নতুন ভূমিকায় ক্রেমারের প্রথম প্রতিপক্ষই হচ্ছে তারই সদ্য সাবেক দল।

বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে নিজেদের শেষ খেলায় এই আরব আমিরাতের কাছে দুর্ভাগ্যক্রমে সামান্য ব্যবধানে হেরেই ক্রেমারের দল জিম্বাবুয়ে আসন্ন বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করতে ব্যর্থ হয়। ব্যর্থতার জেরে ক্রেমারের অধিনায়কত্ব কেড়ে নেওয়া হলে বিদায় জানান খেলোয়াড়ি জীবনকে, ঘোষণা দেন কোচিং ক্যারিয়ার শুরুর।

Also Read - পিটারসনকে সাকিবের কথা স্মরন করালেন স্মিথ


এবার সেই আরব আমিরাতই ক্রেমারকে পরামর্শকের দায়িত্ব দিয়েছে। আইসিসির অন্যতম সহযোগী দেশটির পরামর্শক হিসেবেই শুরু হচ্ছে ক্রেমারের কোচিং ক্যারিয়ার। নিজের প্রথম ‘অ্যাসাইনমেন্টে’ তিনি সফল হতে চাইবেন, এ নিয়ে দ্বিধা নেই। তবে যে দলে কয়দিন আগেও খেলেছেন সেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই জয় তুলে নেওয়ার ছক কষা নিশ্চয়ই সহজ হবে না ক্রেমারের জন্য!

পরামর্শকের পাশাপাশি আরব আমিরাত জাতীয় ক্রিকেট দলের সহকারী কোচের ভূমিকায়ও থাকবেন ৩২ বছর বয়সী সাবেক স্পিনার গ্রায়েম ক্রেমার।

প্রসঙ্গত, জিম্বাবুয়ে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ১৯টি টেস্ট, ৯৬টি ওয়ানডে ও ২৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে অংশ নিয়েছেন ক্রেমার। টেস্টে ৫৭, ওয়ানডেতে ১১৯ ও সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাট টি-টোয়েন্টিতে ৩৫টি উইকেট আছে তার দখলে। দীর্ঘ সময় জিম্বাবুয়ে জাতীয় দলকে নেতৃত্বও দিয়েছেন তিনি। ২০০৫ সালে টেস্ট, ২০০৯ সালে ওয়ানডে ও ২০০৮ সালে টি-টোয়েন্টি অভিষেক হলেও বোর্ডের সাথে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে বিভিন্ন সময় থেকেছেন দলের বাইরে। তবুও তার কার্যকারিতার কারণে জিম্বাবুয়ে বোর্ড বারবার সমীহ করেছে তাকে। সর্বশেষ আইসিসি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে দলকে মূল পর্বে তুলতে ব্যর্থ হলে কেড়ে নেওয়া হয় ক্রেমারের অধিনায়কত্ব।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন