Scores

কোথায় থেকে আসলো মায়ের নামে জার্সি পরার ভাবনা?

বিপিএল ষষ্ঠ আসরে নতুন এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে রাজশাহী কিংস ফ্র্যাঞ্চাইজি। দলের ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফদের জার্সির পেছনে নিজের নামের বদলে মায়ের নামে জার্সি পরে মাঠে নেমেছেন ক্রিকেটাররা। কোথায় থেকে আসলো এই অভিনব চিন্তা?

মায়েদের জয় উৎসর্গ করলো রাজশাহী

এর আগে কখনোই বিপিএলে এমন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেনি কেউ। বুধবার ঢাকা ডাইনামাইটসের বিপক্ষে মাঠে নামেন মায়ের নাম থাকা জার্সি পরে। ফলস্বরূপ বিপিএলে উড়তে থাকা ঢাকাকে হারিয়েছে রাজশাহী কিংস। নিজেদের এই উদ্যোগের কারণে বেশ প্রশংসিত হয়েছে রাজশাহী কিংস। দেশের ক্রিকেট সমর্থকরা এই উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদও জানিয়েছেন।

তবে কোথায় থেকে আসলো এমন ভাবনা? সেই উত্তর দিয়েছেন রাজশাহী কিংসের প্রধান পরিচালক কর্মকর্তা শামসুর রহমান। এই বিষয়ে তিনি বলেন,

Also Read - দারুণ প্রত্যাবর্তনের পরও মার্শালের আফসোস


“মা আসলে এমন একজন মানুষ যাকে শুধু মা’ই বলা যায়। মা ছাড়া অন্যকিছু দিয়ে সেটা প্রকাশ করা যায় না। ব্যক্তিগত জীবনে অনেক সময় মায়েরা যতটুকু প্রাপ্য ততটুকু দিতে পারি না বা দিতে চাই না। এই জায়গা থেকে আমাদের ভাবনাটা আসলো যে এমন একটা দিন কী করা যায় না বা এমন একটা করা যায় না যেটা মা ময়। এখান থেকে আমাদের ভাবনাটা আসলো রাজশাহী কিংসের ক্রিকেটার এবং স্টাফরা আছেন; আমরা একটা দিন যখন মাঠের নামবো, মায়ের নাম লেখা জার্সি পরে।”

প্রথমবার এমন উদ্যোগের সাক্ষী ছিলেন রাজশাহী কিংসের অধিনায়ক মেহেদী হাসান মিরাজ। তার মতে এত বড় ক্রিকেটার হওয়ার পেছনে মায়ের অবদান অনেক বেশি। সেই সাথে সকল সন্তানদের উদ্দেশ্য করে বার্তাও দিয়েছেন এই তরুণ অলরাউন্ডার।

মায়ের ঋণ কখনো শোধ করা যায় না। একটা শিশু কিংবা একটা মানুষের জন্য যদি মা না থাকে তার জন্য বড় হয়ে উঠাটা কষ্টের। মা সবসময়ই। প্রত্যেকের উচিৎ মাকে ভালোবাসা। আমরা সবসময় আমাকে মাকে বেশি ভালবাসবো। যাতে উনাদের কষ্ট না হয় সেদিক খেয়াল রাখব। আমার মা আমার জন্য সবসময়ই দোয়া করতেন আমি যেন অনেক বড় কিছু করতে পারি। হয়ত তার দোয়াই আমি এই জায়গায় আসতে পেরেছি।”

৯০ নম্বর জার্সি পরে মাঠে নামের মুস্তাফিজুর রহমান। জাতীয় দলের জার্সির পেছনে ‘মুস্তাফিজ’ নাম থাকলেও বিপিএলে সেটি পরিবর্তন করে দিয়েছেন ফিজ। বুধবার ঢাকা ডাইনামাইটসের বিপক্ষে ম্যাচে ‘মাহমুদা’ নামে জার্সি পরে মাঠে নামেন মুস্তাফিজ। মায়ের প্রতি ভালোবাসার কথা জানিয়েছেন এই কাটার মাস্টার।

দেশে খেলা হলে, মাঠে নামার আগে আমি আমার মাকে ফোন দিই। নিজের কাছেও ভালো লাগে এবং মাঠে অন্যরকম ভালোলাগা কাজ করে।”

আরও পড়ুনঃদারুণ প্রত্যাবর্তনের পরও মার্শালের আফসোস

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

বল হাতে ফিরতে পেরে স্বস্তিতে রিয়াদ

“ড্রেসিংরুমে এসে দেখে যান আমাদের সম্পর্ক কীরকম”

খেলোয়াড় তুলে আনাই ডমিঙ্গোর মূল লক্ষ্য

জয়ের জন্য বাংলাদেশের সামনে বড় লক্ষ্য

‘সুলভ মূল্যে’ ডমিঙ্গোকে পেয়ে গেছে বিসিবি!