কোনো দোষ না করেই হায়দরাবাদ থেকে বাদ পড়েছিলাম : ওয়ার্নার

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) নজরকাড়া সাফল্য আছে ডেভিড ওয়ার্নারের। অস্ট্রেলিয়ার এই তারকা ব্যাটার দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত ছিলেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের সাথে। তবে শেষ আসরে তাকে দলে ব্রাত্য হয়ে পড়তে হয়। ওয়ার্নারের দাবি, কোনো দোষ না করেই বাদ পড়েছিলেন তিনি। 

হায়দরাবাদের সাথে পথচলার ইতি টানার ইঙ্গিত ওয়ার্নারের
হায়দরাবাদের হয়ে ভুলে যাওয়ার মত এক মৌসুম কাটিয়েছেন ওয়ার্নার। ফাইল ছবি

হায়দরাবাদকে আইপিএলের শিরোপা জেতানো অধিনায়ক ওয়ার্নার চলতি আসরে হারান নেতৃত্ব। সংযুক্ত আরব আমিরাত পর্বে ব্রাত্য হয়ে পড়েন দলেও। একাদশে জায়গা হারান, শেষদিকে দলের সাথে স্টেডিয়ামেও আনা হত না তাকে।

Advertisment

সব মিলিয়ে হায়দরাবাদে ওয়ার্নারের বিদায়ঘণ্টা যেন স্পষ্ট হয়ে উঠেছিল। আইপিএলে ওয়ার্নার যে ফর্মের জন্য বাদ পড়েননি, তা স্পষ্ট ছিল নানা মহলের বক্তব্যে। টুর্নামেন্ট সেরা পারফরম্যান্স করে অস্ট্রেলিয়াকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতানোর পর ওয়ার্নার আবারও মুখ খুললেন সেই কাহিনী নিয়ে।

ওয়ার্নার বলেন, ‘আপনি যে দলকে বছরের পর বছর ধরে ভালোবেসে এসেছেন, সেই দল থেকে যখন আপনাকে বাদ দেওয়া হয় এবং আপনার অধিনায়কত্ব কেড়ে নেওয়া হয়, তখন অবশ্যই কষ্ট হয়। তবে দিনশেষে আমার কোনো অভিযোগ নেই।’

হায়দরাবাদের সাথে পথচলার ইতি টানার ইঙ্গিত ওয়ার্নারের
শেষদিকে একাদশেও ব্রাত্য হয়ে পড়েন অস্ট্রেলীয় তারকা। ফাইল ছবি

ওয়ার্নারের দাবি, দল থেকে বাদ পড়ার মত কোনো দোষ তিনি করেননি। তার ভাষায়, ‘যে কারণেই আমাকে দল থেকে বাদ দেওয়া হোক না কেন, আমি অনুশীলনে বিন্দুমাত্র ত্রুটি রাখিনি। একদিনও অনুশীলন বাদ দেইনি। নেটে ভালোই ব্যাট করছিলাম আমি এবং নিশ্চিত ছিলাম যে ফর্মে ফেরা শুধু সময়ের অপেক্ষা মাত্র।’

তবে বিশ্বকাপে নতুন করে নিজেকে প্রমাণের পর ওয়ার্নার স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত। তিনি বলেন, ‘আমি জানতাম ক্রীড়াক্ষেত্রে কেউ যদি নিজের সর্বস্ব উজাড় করে দেয়, তাহলে সে দ্বিতীয় সুযোগ পাবেই। আমি সেটাই করেছি এবং খুবই খুশি যে আমি সফল হয়েছি।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।