Scores

কোপ-আপ নয়, কোপানোতে বিশ্বাসী রিয়াদ!

এই প্রথম বিপিএলের কোনো ম্যাচ দেখলো সুপার ওভার। সেই সুপার ওভারে খুলনা টাইটান্স হেরে গেছে চিটাগং ভাইকিংসের কাছে। ভালো দল গড়েও টানা চার ম্যাচ হারা খুলনার জন্য এই আসর হয়ে দাঁড়িয়েছে কঠিন।

কোপ-আপ নয়, কোপানোতে বিশ্বাসী রিয়াদ!

সুপার ওভারে খুলনা ভরসা রেখেছিল বিদেশিদের উপর। বাংলাদেশিরা কি সুপার ওভারের অনুপযোগী? এমন প্রশ্নের সুযোগ অবশ্য রাখেননি খুলনার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ‘কোপ-আপ’ বা মানিয়ে নেওয়ার চেয়েও সুপার ওভারে ‘কোপানো’ বা মারকুটে ব্যাটিং গুরুত্বপূর্ণ, বুঝিয়েছেন সেটাই!

বিদেশিদের উপর ভরসা করে সুপার ওভারে মাঠে নামা প্রসঙ্গে রিয়াদ বলেন, এটা টিম ম্যানেজমেন্টের বিষয়আমার কাছে মনে হয়েছে স্টার্লিং অফ সাইডে খুব ভালো, ম্যালানও ভালোআর সবাই ব্র্যাথওয়েটের ব্যাপারে জানিইসব মিলিয়ে তাদের নির্বাচন করা হয়েছে।’

Also Read - শুধু দুসরা নয়, সন্দেহের তালিকায় আলিসের সব ডেলিভারিই!


এক উইকেট পড়ার পর অধিনায়ক কেন ব্যাট হাতে নামেননি, এই প্রশ্নের উত্তর জানিয়ে রিয়াদ বলেন, তিন নম্বরে আমিও যেতে পারতামকিন্তু আমার কাছে মনে হয়েছে স্টার্লিং বেশি ভালোএই তিন অপশনে আমরা গিয়েছিলামএখানে মানিয়ে নেওয়ার কথা বললে, সুপার ওভারে কোপ আপের কিছু নেইএখানে কোপাও অপশনে যেতে হবে।’

এর আগে তিনটি ম্যাচেই হারা খুলনা এই ম্যাচ জয়ের সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেছে। এতে স্বভাবতই মন খারাপ রিয়াদের। তিনি বলেন, দুইটা সময় আমাদের ম্যাচ জেতার সুযোগ ছিলটানা তিনটি ম্যাচ হেরে যাওয়ার পর আজকে ভালো একটি সুযোগ ছিলকিন্তু আমরা দুইবারই সুযোগটা হারালাম।’

সুপার ওভারে রান তাড়া করতে না পারায় রইল অধিনায়কের আক্ষেপও, সুপার ওভারে ১১ রান বড় কোন লক্ষ্য নয়এটা চেজ করার মতআমরা করতে পারেনিজিততে পারলে ভালো লাগতো অবশ্যইপ্রথমবারের মতো বিপিএলে সুপার ওভার।’

কেউই তো আসলে সুপার ওভার চায় নাকোন অধিনায়কই সুপার ওভার খেলতে চাইবে নাআগেই বললাম, ১ ওভারে ১৯ রান ডিফেন্ড করা আমাদের উচিত ছিলসুপার ওভারেও ১২ রান চেজ করা উচিত ছিলকিন্তু আমরা পারিনি।’বলেন রিয়াদ।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

‘ঘরের মাঠে’ বিপিএলের ম্যাচ চায় খুলনা টাইটান্স

বারবার বিপিএলের নিয়ম বদল: নাখোশ মাহেলা-মুডি

মুশফিক-তামিমদের চুক্তিও বৈধ নয়!

বাংলাদেশে খেলতে মুখিয়ে আছেন ওয়াটসন

বিপিএল মাতাতে আসছেন ওয়াটসন