কোহলির দৃঢ়তায় সুবিধাজনক স্থানে ভারত

ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দৃঢ়তার পরিচয় দিচ্ছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বিরাট কোহলি এবং আজিঙ্কা রাহানের জুটির সুবাদে ভারতের রয়েছে বড় ইনিংস গড়ার সম্ভাবনা। 

কোহলির দৃঢ়তায় সুবিধাজনক স্থানে ভারত
সাউদাম্পটনে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসন। কোনো স্পিনার ছাড়াই মাঠে নামে কিউইরা। বোলিং আক্রমণে থাকে পাঁচ পেসার। অন্যদিকে দুই স্পিনার  ও তিন পেসার নিয়ে মাঠে নামে ভারত।

Advertisment

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে সাবলীল ব্যাটিং করে নিউজিল্যান্ডের বোলিং আক্রমণকে সামাল দেন দুই ওপেনার রোহিত শর্মা আর শুভমান গিল। মেঘলা আকাশের  নিচে নিউজিল্যান্ডের পেসাররা সুইং পেলেও শুরু থেকেই নিয়ন্ত্রিত বোলিং করতে পারেননি নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট আর টিম সাউদি। প্রায়ই লেগ স্টাম্পে বা তার বাইরে অথবা খুব সহজেই ছেড়ে দেওয়া যাবে এমন লাইনে বোলিং করেছেন তারা।

রোহিত-গিলের জুটি ভাঙেন কাইল জেমিসন। জেমিসনের দারুণ ডেলিভারিতে টিম সাউদির হাতে ক্যাচ দেন রোহিত। ৬ চারে ৬৮ বলে ৩৪ রান করে বিদায় নেন রোহিত। রোহিতের পতনে ভাঙে ৬২ রানের ওপেনিং জুটি। প্রথম সেশন শেষ হওয়ার আগেই আরেকটি ধাক্কা খায় ভারত। ২৮ রান করে ওয়াগনারের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন গিল।

ক্রিজে নেমে মাটি কামড়ে পড়ে থাকেন চেতেশ্বর পুজারা। তার প্রতিরোধ দীর্ঘস্থায়ী হতে দেননি ট্রেন্ট বোল্ট। বোল্টের দারুণ ডেলিভারিতে দলীয় ৮৮ রানে এলবিডব্লিউ হন পুজারা।

এরপর ভারতের আকাশে শঙ্কার মেঘ জমলেও তা দূর করেন কোহলি আর রাহানে। তাদের অবিচ্ছিন্ন ৫৮ রানের জুটিতে বিপদ কাটিয়ে সুবিধাজনক স্থানে আছে ভারত। আলোকস্বল্পতার কারণে ৬৪ ওভার ৪ বল খেলা হওয়ার পরেই দিনের খেলার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

ভারত (প্রথম ইনিংস) ১৪৬/৩, ৬৪.৪ ওভার
কোহলি ৪৪*, রোহিত ৩৪, রাহানে ২৯*
জেমিসন ১/১৪, ওয়াগনার  ১/২৮, বোল্ট ১/৩২