Scores

কোয়ারেন্টিনের ভালো দিকও দেখছেন সুজন

কোয়ারেন্টিন শুধু বদ্ধ ঘরে হাঁপিয়ে ওঠা নয়, হতে পারে বিশ্রামের মোক্ষম সুযোগও। এমনই মনে করেন বিসিবি পরিচালক ও সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন। শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়ে বাংলাদেশ দল সোমবার থেকে শুরু করেছে কোয়ারেন্টিন পালন।

কোয়ারেন্টিনের ভালো দিকও দেখছেন সুজনf
শ্রীলঙ্কায় গিয়ে করোনা পরীক্ষা দিয়ে শুরু হয়েছে টাইগারদের কোয়ারেন্টিন। ছবি : বিচিবি

নিউজিল্যান্ডে কঠিন কোয়ারেন্টিন পার করে আসা ক্রিকেটাররা দেশে এসে বেশি দিন সময় পাননি, ফের চেপে বসতে হয়েছে বিমানে। নতুন আরেক দেশে যাওয়া মানে আবারও নতুন করে কোয়ারেন্টিন। শ্রীলঙ্কায় অবশ্য নিজ নিজ কক্ষে আবদ্ধ থাকতে হবে মাত্র ৩ দিন। এরপরই অনুশীলনে নেমে পড়া যাবে।

এই কোয়ারেন্টিন ক্রিকেটারদের জন্য কঠিন হবে না বলেই বিশ্বাস সুজনের। বায়ো সেফটি বাবল বা জৈব সুরক্ষা বলয়ে দলের সবাই একসাথে একঘেয়ে হয়ে উঠবেন না বলেও আশাবাদ তার।

Also Read - টস জিতে বোলিংয়ে রাজস্থান, একাদশে মুস্তাফিজ


সোমবার (১২ এপ্রিল) সকালে শ্রীলঙ্কার উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন সুজন। এ সময় কোয়ারেন্টিন খেলোয়াড়দের জন্য কঠিন হয়ে উঠবেন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এটা সবার ক্ষেত্রেই হয়। ওরাও মেনে নিয়েছে। তাও তো ভালো শ্রীলঙ্কায় মাত্র ৩ দিন আমরা রুম কোয়ারেন্টিনে থাকবো। এরপর তো অনুশীলন আছে। হয়ত বায়োবাবলে থাকব, কিন্তু আমরা মোট ৩০-৪০ জন লোক আছি। নিজেদের মধ্যে কথাবার্তা হবে, যোগাযোগ হবে। হোটেলে একসাথে থাকব।’

মহামারীকালে কোয়ারেন্টিন না মেনে খেলার সুযোগও নেই। সুজন যেন তাই কোয়ারেন্টিনের ইতিবাচক দিকটাই খুঁজতে চাইলেন। তার ভাষায়, ‘আমি মনে করি একদিকে ভালো। ছেলেদের জন্য ভালো বিশ্রাম হবে। তাতে মানসিক ও শারীরিক প্রস্তুতি ভালো হবে ইনশাআল্লাহ।’

আলাপচারিতায় তিনি শ্রীলঙ্কার কন্ডিশন নিয়েও কথা বলেন। সুজন বলেন, ‘শ্রীলঙ্কায় গরম থাকবে। উইকেট ভালো থাকে। শক্তিমত্তায় দুই দলই সমান। ওদের কন্ডিশনে শ্রীলঙ্কা কঠিন প্রতিপক্ষ। কিন্তু আমরাও পিছিয়ে নেই। প্রসেস ঠিক থাকলে এই সিরিজে অনেক ভালো করব।’

Related Articles

ডমিঙ্গোকে ‘বলির পাঁঠা’ না বানানোর আহ্বান সুজনের

জুনিয়র ক্রিকেটারদের পেশাদারিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুললেন সুজন

তাসকিনের নিবেদন দেখে মুগ্ধ সুজন

এক বছর ড্র করতে পারলে টেস্ট ম্যাচ জেতা শিখব : সুজন

আক্রমণাত্মক ও ইতিবাচক ক্রিকেট খেলতে চায় বাংলাদেশ