লিটনকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে নারাজ মুশফিক

শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে শুরু হল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সুপার টুয়েলভ পর্ব। গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে দুইটি ক্যাচ ছাড়ায় অনেকেই হারের দায় চাপাচ্ছেন লিটন দাসের কাঁধে। তবে মুশফিকুর রহিম লিটনকে দোষারোপ করতে নারাজ।

লিটনকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে নারাজ মুশফিক
একাই দুইটি ক্যাচ হাতছাড়া করে ম্যাচ কঠিন করে তোলেন লিটন।

মুশফিকের মতে, লিটন দলের অন্যতম সেরা ফিল্ডার। তিনি ক্যাচ হাতছাড়া করলেও দোষারোপের সুযোগ ছিল, কিন্তু লিটনের মত ফিল্ডারকে দোষ দেওয়ার সুযোগ নেই।

Advertisment

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে মুশফিক বলেন, ‘দায় দেওয়ার কিছু নেই। যত রানই করুন না কেন, কিছু ছোটখাটো ভুল থাকেই। আবার কিছু ইতিবাচক দিকও থাকে। আমার কাছে মনে হয়, দুইটা ক্যাচ খুব গুরুত্বপূর্ণ হত।’

ক্যাচ হাতছাড়ায় ম্যাচ ফসকেছে, এমনটি মেনে নিলেও লিটনকে আগলে রাখতে ভুলেননি মুশফিক। তিনি জানান, ‘লিটন খুবই ভালো ফিল্ডার। আমার কাছ থেকে এমন হলে এক কথা ছিল। আমি ওরকম মানের ফিল্ডার না। যেহেতু ও আমাদের অন্যতম সেরা ফিল্ডার… ঐসময় গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত ছিল। দুইজন বাঁহাতি খুব ভালো ব্যাট করছিল। ব্রেক থ্রু খুব দরকার ছিল।’

বাংলাদেশ প্রথমে ব্যাট করে জড়ো করেছিল ১৭১ রান। তারপরও জয় না পাওয়ার পেছনে শারজার উইকেটের বৈচিত্র্যকেই দায়ী করছেন মুশফিক।

তার ভাষায়, ‘আজকের উইকেটে ব্যাটিং করে আমি টের পেয়েছি- শারজায় গত ম্যাচগুলোতে যেমন ১৪০-১৫০ উইনিং স্কোর ছিল, আজ এমন ছিল না। উইকেট ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো ছিল আর এক পাশের বাউন্ডারি ছোট ছিল।’

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১৭১ রানকে জয়ের পুঁজি মনে করলেও মুশফিকের দাবি ভিন্ন। তিনি বলেন, ‘আমরা জানতাম, ১৭১ উইনিং স্কোর না, তবে আমরা যদি ৫-৬ ওভার ভালো শুরু করি আর সুযোগ কাজে লাগাতে পারি তাহলে ম্যাচে থাকতে পারব। দ্রুত উইকেট নিলেও ওরা পাওয়ারপ্লে ভালো কাজে লাগিয়েছে। সাকিবের ওভারে নিয়ন্ত্রণ আবার আমাদের কাছে এসেছিল। শেষপর্যন্ত সেট ব্যাটসম্যানরা দাপটের সাথে ব্যাটিং করেছে। তাই ঠিক দায় চাপান নয়, তবে আমরা ছোটখাটো কিছু ভুল করেছি। এজন্য ম্যাচটা জিততে পারিনি।’ 

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।