ক্যারিবীয় বোর্ডের পরিচালকের দায়িত্বে স্যামি

ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ক্রিকেটার ড্যারেন স্যামিও এবার প্রশাসকের ভূমিকা নিলেন। দেশটির দুইবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের (সিডব্লিউআই) পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। 

ক্যারিবীয় বোর্ডের পরিচালকের দায়িত্বে স্যামি

Advertisment

২০১৬ সালে ইডেন গার্ডেনসে নিজেদের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এরপর থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দূরে স্যামি। ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে খেলার পাশাপাশি কোচিংও করাচ্ছেন, এবার নিলেন সংগঠকের ভূমিকা।

সিপিএলের সর্বশেষ আসরের ফাইনালে সেন্ট লুসিয়াকে নেতৃত্ব দিয়ে ফাইনালে তুলেছিলেন। এ বছর তিনি দলটির পরামর্শক ও ব্র্যান্ড অ্যাম্বেসেডরের দায়িত্ব নিয়েছেন। এছাড়া পিএসএলের দল পেশোয়ার জালমিকে কোচিংও করাচ্ছেন তিনি।

৩৭ বছর বয়সী স্যামি খেলোয়াড়ি জীবনকে এখনও বিদায় জানাননি। তবে এখনই তাকে সিডব্লিউআই এর স্বাধীন নন-মেম্বার ডিরেক্টর হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আগামী দুই বছর বোর্ডের এই গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন থাকবেন স্যামি।

ক্যারিবীয় বোর্ডের সভাপতি রিকি স্কেরিট বলেন, ‘আমি ড্যারেন স্যামিকে পরিচালক হিসেবে স্বাগত জানাতে পেরে আনন্দিত। তার ভূমিকা নিশ্চিত করবে, নতুন ধারণা ও সমাধান প্রণয়নে সব সঠিক ব্যবস্থা নিশ্চিত করা। দুইবারের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক হিসেবে তার অভিজ্ঞতা ও আধুনিক সময়ের ক্রিকেটার হিসেবে তার দৃষ্টিভঙ্গি বোর্ডের বোর্ডের আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণে ভূমিকা রাখবে।’

যে বোর্ডের অধীনে দীর্ঘ সময় খেলেছেন, সেই বোর্ডে দায়িত্ব পেয়ে স্যামিও বেশ খুশি। তিনি বলেন, ‘বোর্ডের পরিচালক পদে নিয়োগ পাওয়া সম্মানের একটি বিষয়। আমার জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটকে নতুনভাবে, মাঠের বাইরে কিছু দিতে পারার দারুণ সুযোগ এটা।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘আমার স্থানীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক খেলার অভিজ্ঞতাগুলো আমাকে বোর্ডে ভূমিকা রাখার মত এই যোগ্যতা তৈরি করে দিয়েছে। আমি রোমাঞ্চিত এবং কৃতজ্ঞ, আমার প্রিয় এলাকায় বোর্ডের সেবা করার যে সুযোগ দেওয়া হয়েছে তার জন্য।’

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে স্যামি ৩৮টি টেস্ট, ১২৬টি ওয়ানডে ও ৬৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন। এছাড়া খেলেছেন ৩২০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ।