Scores

ক্রিকেটারদের খাবারের বিষয়ে সতর্কবার্তা বাশারের

ক্রিকেট এবং ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট সব ধরণের কার্যক্রম বন্ধ থাকার কারণে বেশ লম্বা ছুটিতে আছেন ক্রিকেটাররা। এমন সময় বিষন্নতায় ভুগতে পারেন অনেকেই। পরিবারের সাথে সময় কাটাতে গিয়ে বাড়িয়ে দিতেন পারেন খাওয়া-দাওয়া। যে কারণে ক্রিকেটারদের সতর্ক থাকতে বলছেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।

ক্রিকেটারদের খাবারের বিষয়ে সতর্কবার্তা বাশারের

ফিটনেসের বিষয়ে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটারের থেকে বেশ খানিক পিছিয়ে বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা। তবে সম্প্রতি নিজেদের ফিটনেসের বিষয়ে মনোযোগী হয়েছেন তামিম ইকবাল, মুস্তাফিজুর রহমানরা। এমন সময়েই কীনা বন্ধ হয়ে গেল ক্রিকেট। লম্বা সময়ের ছুটিতে ক্রিকেটাররা।

Also Read - পন্টের কোভিড-১৯ একাদশে কোহলি 'ভাইরাস'


করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে স্থগিত হয়ে গেছে বিশ্বজুড়ে চলা সমস্ত টুর্নামেন্ট। একই পথে হাঁটতে বাধ্য হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও। ফলে অন্তত আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে বাংলাদেশের সব ধরণের প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট। যার কারণে স্থগিত হয়ে গেছে চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগও।

এর ফলে লম্বা ছুটিতে ক্রিকেটাররা। অধিকাংশ ক্রিকেটারই ছুটি কাটাচ্ছেন পরিবারের সাথে। তবে সারাদিন বাসায় বসে থাকতে গিয়ে বিষন্নতায় ভুগতে পারেন অনেকেই। পরিবারের সঙ্গে সময় দিতে গিয়ে বাড়িয়ে দিতে পারে খাওয়া-দাওয়া। এজন্য ক্রিকেটারদের খাবারের বিষয়ে সতর্কবার্তা দিলেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।

বাংলাদেশ দলের সাবেক এ অধিনায়ক বলেন, ‘যে পরিস্থিতি তাতে কারো হাত নেই। কঠিন বস্তবতা মেনে নিতে হবে। খেলাতো নেই এমনকি জিমে যাওয়া বারণ করা হয়েছে। কারণ নিরাপদ নয়। তবে এতে বেশির ভাগ ক্রিকেটারই বিষন্নতায় ভুগতে পারে। দেখা যায় বাসায় থেকে পরিবারের সঙ্গে সময় দিতে গিয়ে বাড়িয়ে দিতে পারে খাওয়া-দাওয়া। মোটেও এমন করা যাবে না।’

‘নিজেদের খাদ্যাঅভ্যাস এই সময় ঠিক রাখা ভীষণ জরুরি। যদি সেটি ঠিক রাখা না যায় তাহলে ওজন বাড়বে, মুটিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। এতে করে দ্রুত ফিটনেস ফিরে পাওয়া কঠিন হবে। যদি শরীর ঠিক থাকে তাহলে স্কিল ও ফিটনেস দ্রুত ফিরে পাওয়া সম্ভব হবে।’ সাথে যোগ করেন তিনি।

পরিস্থিতি অনুকূলে এলে দ্রুত মাঠে ফিরলে আবার সব স্বাভাবিক হয়ে যাবে বলে মত দেন সুমন, ‘এই খারাপ সময়টা শুধু বাংলাদেশের নয় ভারত, অস্ট্রেলিয়ারও। শুধু তামিম ইকবালদের খেলা বন্ধ তা নয়, ঘরে বসে আছে বিরাট কহোলিরাও। তাই আমি বলবো সবার জন্যই সমান পরিস্থিতি। এই সময়ের ক্ষতিটা পুষিয়ে নেয়া কঠিন। তবে আমি মনে করি সম্ভব হবে। দ্রুত মাঠে ফিরতে পারলে হয়তো ১৫ থেকে ২০ দিনের মধ্যেই সব ঠিক হয়ে যেতে পারে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

করোনা শনাক্তের কিট দিচ্ছেন সাকিব

করোনা ইস্যুতে চার ক্রিকেটার নিয়ে বৈঠকে বসবেন মোদি

ড্রেসিংয়ের জন্য হাসপাতালেও যেতে পারছেন না সাদমান

এক দিনে দুই ম্যাচ খেলবে ইংল্যান্ড!

দুই বছরের বেতনই দান করে দিলেন গম্ভীর