Scores

ক্রিকেটারদের সংসার করাটা আরও সহজ: মাশরাফি

২০০৬ সালের ৭ সেপ্টেম্বর নিজ গ্রাম নড়াইলের মেয়ে সুমনা হক সুমির সাথে জীবনের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা। দেখতে দেখতে এরই মধ্যে কেটে গেছে তাদের দাম্পত্য জীবনের ১২টি বছর। জীবনের দ্বিতীয় ইনিংসে দুজনে মিলে এক যুগ কাটিয়ে দেওয়ার পর ১৩তম বিবাহবার্ষিকী পালনের অপেক্ষায় তারা দুজন।

 ক্রিকেটারদের সংসার করাটা আরও সহজ: মাশরাফি

বর্তমান সময়ের ক্রিকেটারদের মধ্যে একাধিক বিবাহ, বিবাহ বিচ্ছেদের মতো ঘটনাগুলো যখন প্রায় সাধারণ ঘটনার রূপ ধারণ করছে সেখানেও ব্যতিক্রম অনেকেরই আদর্শ এ ক্রিকেটার।

বর্তমান ক্রিকেটারদের নামে যেখানে একের পর এক নারীঘটিত ব্যাপারে একাধিক অভিযোগ সেখানে মাশরাফি দম্পত্তি সুখী যুগল। কারও প্রতি কারোর নেই কোনো অভিযোগ। এশিয়া কাপের আগে শেষদিনের অনুশীলন শেষে মাশরাফি যখন সাংবাদিকদের মুখোমুখি তখন এক সাংবাদিক খেলার বাইরে গিয়ে জিজ্ঞাসা করে বসলেন কীভাবে বিনি সুতোয় গেঁথে রেখেছেন আপন মানুষদের?

Also Read - এশিয়া কাপে ভারত, পাকিস্তানের প্রতিপক্ষ হংকং


যেখানে একটু তারকাখ্যাতি পেলেই অনেক তরুণ খেলোয়াড়ের না কি মাথা ঘুরে যায়, তিনি কীভাবে মাথাটা ঠিক রেখেছেন? ক্রিকেটের সঙ্গে সংসারটা কীভাবে সমান্তরালে সামলে চলেছেন?

প্রশ্নকর্তার এমন প্রশ্নে সরল স্বীকারোক্তি নড়াইল এক্সপ্রেসের। ক্রিকেটারদের সংসার সামলানো চাকুরিজীবীদের চেয়ে আরও সহজ জানিয়ে তিনি বলেন,

‘ক্রিকেটের সাথে সংসার…আসলে যারা চাকরি করছে তাঁরাও তো সংসার করছে। এখানে কঠিন কিছু নেই। পুরোটাই একজন আরেকজনের সাথে বোঝাপড়ার বিষয়। আমার তো মনে হয় চাকুরিজীবীদের থেকে ক্রিকেটারদের সংসার করাটা আরও সহজ। চাকুরিজীবীদের সংসার সামলানো কঠিন।’

তবে চাকুরিজীবীদের চাইলে কিছু ক্ষেত্রে যে ক্রিকেটারদের সুবিধা থাকে তা জানাতেও ভুল করেননি তিনি। সেক্ষেত্রে পরিবার সাথে নিয়ে বিভিন্ন সফরে যাওয়ার সুযোগের কথা ব্যক্ত করে তিনি আরও যোগ করেন,

‘আমাদের অফুরন্ত গ্যাপ থাকে, সুযোগ থাকে পরিবার নিয়ে সফর করার। এটা একজন চাকরিজীবী বা অন্যান্য পেশায় থাকে না। এটা (সফর) যুগলদের জন্য আরও ইন্টারেস্টিং, স্পোর্টস আসলে বন্ডিংটা আরও শক্ত করে।’

 


আরও পড়ুনঃ এশিয়া কাপে ভারত, পাকিস্তানের প্রতিপক্ষ হংকং

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন


Related Articles

মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্রে নিজের নাম দেখে কৃতজ্ঞ তামিম

মেডিকেল রিপোর্টের উপরেই নির্ভর করছে সাকিবের এনওসি

এই মিরাজ অনেক আত্মবিশ্বাসী

মিঠুনের ‘মূল চরিত্রে’ আসার তাড়না

‘আঙুলটা আর কখনো পুরোপুরি ঠিক হবে না’