Scores

ক্রিকেটে করোনার থাবা: আক্রান্ত-মৃত্যু

গোটা বিশ্বকেই গ্রাস করেছে নোভেল করোনাভাইরাস। প্রাণঘাতী এই ভাইরাস থেকে রক্ষা পায়নি ক্রিকেটও। ক্রিকেটে কোভিড-১৯ আক্রান্ত সবশেষ ক্রিকেটার পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদি। মৃতের তালিকায়ও উপরে পাকিস্তানের নাম।

যত দিন গড়াচ্ছে ততই বাড়ছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। মহামারি রূপ নেওয়া এই ভাইরাসে গোটা বিশ্বে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৭৭ লাখ ৭৩ হাজার ৭৬০ জন। মৃত ব্যক্তির সংখ্যা ৪ লাখ ২৮ হাজারের উপরে। করোনার প্রভাবে ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছেন ৩ জন।

Also Read - আইসিএল খেলতে যাওয়ার কারণ জানালেন আফতাব


ক্রিকেটে করোনার ছোঁয়া প্রথম আতঙ্কিত করে পাকিস্তান সুপার লিগকে। পিএসএল চলাকালীন কোভিড-১৯ উপসর্গ নিয়ে দেশে ফিরে যান ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার অ্যালেক্স হেলস। এরপর বন্ধ হয়ে যায় গোটা টুর্নামেন্টই। যদিও দেশে ফিরে আইসোলেশনে থেকে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেন হেলস।

প্রথমবার ক্রিকেটে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে স্কটল্যান্ডের ক্রিকেটার মাজিদ হকের। তিনি দেশটির হয়ে সর্বশেষ মাঠে নেমেছেন ২০১৫ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে। স্কটল্যান্ডের জার্সিতে ৫৪টি ওয়ানডে ও ২১টি টি-টোয়েন্টি খেলা মাজিদ জাতীয় দল থেকে অবসর নিয়েছেন। বর্তমানে স্কটল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলছেন তিনি।

সবশেষ আফ্রিদিকে নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেটে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে ঠেকেছে ৪ জনে। যেখানে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস থেকে নিস্তার মিলেছে দেশটির সাবেক ব্যাটসম্যান তৌফিক উমরের। তবে করোনায় মারা গেছেন পাকিস্তানের প্রথম শ্রেণির দুই ক্রিকেটার জাফর সরফরাজ ও রিয়াজ শেখ।

করোনা প্রভাব দেখিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেটেও। সাবেক ক্রিকেটার ও বোর্ড পরিচালকসহ এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন সর্বমোট ৩ জন। স্বস্তির খবর হচ্ছে, সাবেক ক্রিকেটার ও কোচ আশিকুর রহমান মজুমদার, সজীব দাস ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, এই ৩ জনই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মার্চের শেষ দিকে মারা গেছেন ইংলিশ কাউন্টি ক্রিকেট দল ল্যাঙ্কাশায়ারের চেয়ারম্যান ডেভিড হগকিস। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। এছাড়াও কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটার সোলো নাকওয়েনির। ২০১২ সালে দেশের হয়ে যুব বিশ্বকাপ খেলেছিলেন এই ক্রিকেটার।

করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে ভারতীয় ক্রিকেটেও। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে ১৯৮৯-৯০ রঞ্জি ট্রফি জয়ী বাংলা দলের সদস্য সাগরময় সেনশর্মার। শুরুতে সেনশর্মার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। এরপর নিজে কোয়ারেন্টিনে থাকার পরেও আক্রান্ত হন ৫৪ বছর বয়সী সাবেক এই পেসার।

কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ান পেসার কেন রিচার্ডসনের। মার্চের শুরুর দিকে ঠাণ্ডা, সর্দি-কাশির সঙ্গে অসম্ভব গলা ব্যাথায় ভুগছিলেন তিনি। অসুস্থতার কথা টিম মেনেজমেন্টকে জানাতেই নড়ে চড়ে বসে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। সঙ্গে সঙ্গে করোনা সন্দেহে তাকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়। পরে পরীক্ষা করে জানা যায়, করোনায় আক্রান্ত নন তিনি।

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

সাঙ্গাকারা-ম্যাককালামদের চেয়ে এগিয়ে ধোনি

পাকিস্তান সফরে যেতে আপত্তি নেই ইংল্যান্ড কোচের

ইংলিশদের দেশে নেওয়ার কায়দা করছে পাকিস্তান

“বাবর যদি কোহলি হতেন, তাহলে সবাই তাকে নিয়ে কথা বলত”

বৃষ্টিভেজা ম্যানচেস্টারে আলো ছড়ালেন বাবর