Scores

খেলা বন্ধ থাকার পরও যে কারণে শীর্ষস্থান হারালো ভারত!

সারা বিশ্বেই করোনাভাইরাসের কারণে সকল ধরনের খেলাধুলা আপাতত বন্ধ। আইসিসি তাদের বিভিন্ন বাছাইপর্বের খেলা আগামী জুন মাস পর্যন্ত বন্ধ রেখেছে। আইপিএল পিছিয়েছে অনির্দিষ্টকালের জন্য। নেদারল্যান্ডস ক্রিকেট বোর্ডও তাদের এই সিজনের খেলা বাতিল করে দিয়েছে। খেলা শুরু হওয়া সম্ভাবনা প্রায় শূন্যের কোঠায় ইংল্যান্ডেও। লম্বা সময় ক্রিকেট ভক্তদের জন্য থাকছেনা কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ থাকছেনা। তবে ভক্তদের জন্য এই নিরুত্তাপ সময়েও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড় তুললো আইসিসির নতুন হালনাগাদকৃত র‌্যাঙ্কিং।

ভারতে আসলে দেখিয়ে দিব: কোহলি

শুক্রবার মে মাসের প্রথমদিন আইসিসি প্রকাশ করে তাদের হালনাগাদকৃত নতুন র‌্যাঙ্কিং। নতুন প্রকাশিত এই র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ দলের পয়েন্ট আফগানিস্তানের তুলনায়ও কম। লম্বা সময় পর শীর্ষস্থান হারালো ভারতীয় দল। ভারতীয় দল শীর্ষস্থান হারানোয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আইসিসির প্রতি নানান বিদ্বেষপূর্ণ টুইট ছুড়ে দিচ্ছেন অনেক ভারতীয় ভক্ত। তাদের দাবি এই লকডাউনের মাঝে কোনো ক্রিকেট না হওয়ার পরও কীভাবে ভারতীয় দল থেকে ১ থেকে ৩ নম্বর অবস্থানে এসেছে? এই রকম পরিস্থিতি মানতে পারছেন না অনেক আবেগপ্রবণ ভক্ত।

Also Read - চাপা কষ্ট নিয়ে সদুত্তরের খোঁজে শাহরিয়ার নাফীস


তবে তাদের দাবি কি শুধুই আবেগ নাকি এর বৈধতাও আছে? আইসিসি যেই নিয়মে এই তালিকা হালনাগাদ করেছে তাতে বলার অপেক্ষা রাখেনা এটি আবেগ ছাড়া কিছুই নয়, কারণ আইসিসি তাদের প্রচলিত নিয়ম মেনেই সব করেছে। এমন দাবি পাকিস্তানের ভক্তদেরও। পাকিস্তান টি-টোয়েন্টিতে শীর্ষস্থান হারানোতে হতাশ পাকিস্তান ভক্তরাও।

তো কীভাবে কোনো খেলা ছাড়াই হঠাৎ এই পরিবর্তন? আইসিসির নিয়ম হচ্ছে প্রতি বছর মে মাসের ১ তারিখ র‌্যাঙ্কিং হালনাগাদ করা কোনো খেলা হোক বা না হোক। এই হালনাগাদে দেখা হয় দলগুলোর গত ৩ বছরের পারফরম্যান্স।

এখানে বছর বলতে আইসিসির ক্রিকেটীয় বছর বোঝানো হয়েছে। যা কোনো বছরের ১লা মে থেকে শুরু হয় পরবর্তী বছরের এপ্রিল পর্যন্ত থাকে। এই হালনাগাদে ধরা হয়েছে ২০১৭-২০১৮, ২০১৮ – ২০১৯ ও ২০১৯ – ২০২০ সালের পারফরম্যান্স। সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পেয়েছে গত ১ বছরের পারফরম্যান্স। যেখানে ভারত নিউজিল্যান্ডে বাজেভাবে হেরেছে। ভারতের গত কয়েক বছরের সেরা পারফরম্যান্স ছিল ২০১৬ -২০১৭ ক্রিকেটীয় বছরে। সেই সময়ে ভারতে ১২টি টেস্ট ম্যাচ জিতে ও হারে একটি ম্যাচ। সেই পারফরম্যান্স এই হালনাগাদের সময় বাদ পরে যাওয়ার ফলে ভারতের এই অবনতি র‌্যাঙ্কিংয়ে। তাই ভক্তরা মেনে নিতে না চাইলেও আইসিসি যে সঠিক নিয়ম মেনেই এই হালনাগাদ করেছে তা হয়তো বলতে অপেক্ষা রাখেনা।

Related Articles

এলপিএলে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব, তদন্তে আইসিসি

‘ভারত-অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড এখন কেবলই আইসিসির সদস্য’

আইসিসির নতুন সভাপতির নাম ঘোষণা

আইসিসির দশক সেরা পুরস্কারের জন্য মনোনীত যারা

যার জন্য হতো অভিশাপ, বিতর্কিত নিয়মকে তিনিই জানালেন স্বাগত