Scores

এত পরিবর্তনে বিরক্ত বিসিবি সভাপতি

প্রচলনটা হয়েছিল সাকিব আল হাসানের হাত ধরে। দেশের ক্রিকেট তো বটেই, বিশ্বের নানা লিগেও খেলে বেড়াতেন। টানা ক্রিকেটের ধকল কাটাতে মাঝেমাঝে তাই চাইতেন বিশ্রাম। সেই সাকিব এখন মাঠে নেই নিষেধাজ্ঞার কারণে।

খেলোয়াড়দের এমন 'আচার' নিয়ে চিন্তিত বিসিবি

তবে সাকিব না থাকলেও আছে খেলোয়াড়দের বিরতি নেওয়ার প্রবণতা। বিশ্বকাপ ও শ্রীলঙ্কা সফরের পর ত্রিদেশীয় সিরিজ ও আফগানিস্তান টেস্টে বিশ্রামে ছিলেন তামিম ইকবাল, যিনি স্ত্রীর অসুস্থতার কারণে যাননি ভারত সফরেও। পাকিস্তান সফরে দল পাচ্ছে না মুশফিকুর রহিমকে। পরিবারের উদ্বেগের কারণে মুশফিক পাকিস্তান যাচ্ছেন না নিরাপত্তাব্যবস্থার অজুহাতে।

Also Read - টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ দল ঘোষণা






দলের নিয়মিত ক্রিকেটাররা অনুপস্থিত থাকলে তরুণদের সুযোগ দিতে হয়। তরুণরা ভালো করলেও বাদ পড়ে যান, যখন সিনিয়র ক্রিকেটাররা মাঠে ফেরেন। অথবা খারাপ করে বাদ পড়লে লেগে যায় ফর্মহীনের তকমা।

তাদের পক্ষে এবার কথা বলেছেন স্বয়ং বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তার মতে, অভিজ্ঞ পারফর্মারদের বিরতিতে নতুন খেলোয়াড় দলে নেওয়ার প্রক্রিয়াটা সহজ নয়।






বিশ্বকাপের পর দলের একতা কমে গেছে কি না, এমন প্রসঙ্গে আলাপ শুরু করলেও সংবাদমাধ্যমের সামনে বিসিবি সভাপতির কথার সুর খুঁজে পেল খেলোয়াড়দের আরও একটু নিয়মের মধ্যে বেঁধে রাখার প্রয়োজনীয়তা। সাকিবের অনুপস্থিতিতে তার অভাব ঘোচাতে কতটা চিন্তিত টিম ম্যানেজমেন্ট, তা স্পষ্ট বোর্ড প্রধানের বক্তব্যে।

পাপন বলেন, ‘টিম ম্যানেজমেন্ট বলেন বা বোর্ড- আমরাও এখন কিছু বিষয় নিয়ে স্ট্রাগল করছি। বিশ্বকাপের পরের কথাই ধরুন। ভারত সফরের ৩ দিন আগে জানলাম সাকিব খেলবে না। ওটা আমাদের জন্য বড় ধাক্কা। হঠাৎ করে সাকিবের বদলি পাওয়া অবশ্যই কঠিন। এমনকি এটাও তো সবসময় বলেছি যে সাকিবের কোনো বদলি আমাদের হাতে নেই। বদলি হিসেবে হয় আমি একটা ব্যাটসম্যান নিতে পারব, অথবা একটা বোলার নিতে পারব। দুই জায়গার অভাব পূরণ করতে পারবে সাকিবের এমন বদলি আমাদের হাতে নেই। এটা একটা ব্যাপার ছিল। ‘

শুধু সাকিব নন, বোর্ডকে বড় ধাক্কা খেতে হয়েছিল তামিমের কারণেও। একটি টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ত্রিদেশীয় সিরিজে বিশ্রামের পরও ভারত সফরের আগমুহূর্তে তামিম সিরিজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন। একইভাবে পাকিস্তানে মুশফিক না যাওয়ায় আগামী দিনে যে জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে, তাও অকপটে বললেন।

পাপন বলেন, ‘তামিম বলল যাবে না- এটা আরেকটা বড় ধাক্কা। ওপেনিংয়ে নতুন খেলোয়াড় খোঁজা দরকার ছিল। ভারত সিরিজে নাইমকে নামালাম। পাকিস্তানে তামিম ফিরল, মুশফিক যায়নি। চারের পজিশন নিয়ে নতুন করে ঝামেলা হল। আমরা আগে জানতে পারলে একটা পরিকল্পনা করা যায়। আগমুহূর্তে জানলে সুযোগ থাকে না। সামনে একটা টেস্ট আছে। মুশফিকের চেয়ে নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান তো আমাদের নেই। চার নম্বরে নতুন কাউকে নামালাম। একটা টেস্টের জন্য ও কী করবে? এক টেস্টের জন্য খেলা যায়? ও জানে, ভালো করলেও পরে সুযোগ পাবে না। আর খারাপ করলে তো ক্যারিয়ারই শেষ। এই টেনশনে তো খেলাই যায় না। অন্তত তিনটা ম্যাচ তো তাকে পরপর খেলতে দিতে হবে।’ 

‘এই টেস্টের পর জিম্বাবুয়ের সাথে খেলা, তখন মুশফিক খেলবে। আবার পাকিস্তানে যাবে, আবার পরিবর্তন। এত পরিবর্তন! এই জিনিসটা নিয়ে আমাদের চিন্তা করার সময় এসেছে। কেউ যাবে না বা খেলবে না, ভালো কথা। কিন্তু এটা আমাদের আগে জানাতে হবে। নতুন কাউকে সুযোগ দিলে অন্তত তিনটা ম্যাচে তো তাকে সুযোগ দিতে হবে। প্রতি খেলার আগে পরিবর্তন করা খুব কঠিন।’– বলেন পাপন।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

“তামিমের জন্য ধারাভাষ্য কক্ষ আদর্শ জায়গা”

বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি খুবই উদ্বেগজনক : উইলিয়ামসন

তামিম-মুশফিকের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপভোগ করেন সাকিব

জাহানারার কণ্ঠে তামিমের সুর

বোনের জানাজায়ও যেতে পারলেন না আকরাম