Scores

গণমাধ্যমের চিরায়ত প্রশ্ন ‘অদ্ভুত’ ঠেকেছে রাসেলের কাছে

পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুই দলই যখন ফাইনালে ওঠে, জমজমাট এক লড়াইয়ের প্রত্যাশা করা যেতেই পারে। তবুও বড় ম্যাচের আগেও সংবাদমাধ্যমের প্রচলিত প্রশ্ন- কারা ফেভারিট? আন্দ্রে রাসেলের কাছে সেই প্রশ্নটাই অদ্ভুত ঠেকল।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সপ্তম ও বিশেষ আসর বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ফাইনালে শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) মাঠে নামবে খুলনা টাইগার্স ও রাজশাহী রয়্যালস। ম্যাচের আগের দিন দেখা মিলল কাঙ্ক্ষিত ট্রফির। খুলনা টাইগার্সের দলপতি মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে ট্রফি উন্মোচনের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি রাজশাহী রয়্যালসের অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল।

Also Read - দল থেকে বাদ পড়ে টুইট করে বিপাকে আমির







ফাইনালে কারা ফেভারিট বা কারা এগিয়ে থাকবে, এমন প্রশ্নের জবাবে বেশ অবাকই হলেন ক্যারিবীয় তারকা রাসেল।

রাসেলের মতে, ফাইনালের মত ম্যাচে ফেভারিট খোঁজা অনুচিত, তবে তার দল যে ফাইনাল জিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই খেলবে এ কথা জানিয়েছেন আত্মপ্রত্যয়ী কণ্ঠে।





রাসেল বলেন-

‘এটা একটা অদ্ভুত প্রশ্ন, কারণ যারা ফাইনালে ওঠে তারা শিরোপা জেতার সামর্থ্য রাখে বলেই ওঠে। আমাদের মাথায় জয় ছাড়া অন্য কোনো চিন্তা নেই। গত রাতে একটি দল হিসেবেই আমরা খেলেছি। দেখিয়েছি আমরা কী করতে পারি এবং আগামীকালও শক্ত লড়াই দিতে চাই।’

রাজশাহী রয়্যালস এখন পর্যন্ত তিন বার খুলনা টাইগার্সের মুখোমুখি হয়েছে। একটি ম্যাচে জিততে পারলেও হেরে গেছে দুটি ম্যাচেই, যার একটি ছিল প্লে-অফে। প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচটি জিতেই খুলনা নিশ্চিত করেছিল ফাইনাল। শিরোপা অর্জনের ম্যাচে তাই নিজেদের সেরাটা প্রদর্শনের বিকল্প নেই রাসেলদের সামনে।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক নিউজ সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 

Related Articles

উইকেট বিবেচনায় হার্শার কাঠগড়ায় সাকিব

সাকিব-রাসেলদের দুর্দান্ত বোলিং, মুম্বাইয়ের ‘১৫২’

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশকে রাসেলের শুভেচ্ছা

টি-১০ থেকে সরে দাঁড়ালেন রাসেল

এলপিএলে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক ৬০ হাজার ডলার