“গর্তের ওপাশে আলো আছে”

0
1078

সর্বশেষ কবে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট এমন দুঃসময় পার করেছিল, তা স্মরণ করা একটু দুরূহই। বল টেম্পারিং কাণ্ডে প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান ক্যামেরন ব্যানক্রফটের পাশাপাশি হারাতে হয়েছে নিষেধাজ্ঞা পাওয়া অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও তার ডেপুটি ডেভিড ওয়ার্নারকে। সেই ভাঙা অবস্থায় ওয়ানডে দলের হাল ধরতে হয়েছিল টিম পেইনকে।

 

Advertisment
ছবিঃ এএপি

 

যদিও অধিনায়কের ভূমিকায় থেকে দলকে সাফল্য এনে দিতে পারেননি পেইন। সদ্য সমাপ্ত ইংল্যান্ড সিরিজে অজিরা স্বাগতিকদের কাছে হেরেছে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের সব ম্যাচই। ৫-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটে বইছে অস্বস্তিকর হাওয়া।

তবে এমন পরিস্থিতিতেও অজি অধিনায়ক পেইন খুঁজে বেড়াচ্ছেন ইতিবাচকতা। দুঃসময়ের পর আসবে সুসময়, এই প্রত্যাশায় পেইন আছে সুসময়ের খোঁজে।

সিরিজ হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পর ৫ম ওয়ানডে প্রসঙ্গে পেইন বলেন, ‘ইনিংসের বেশিরভাগ অংশেই আমরা ভালো বোলিং করেছি, ভালো লেন্থে বল ছুঁড়েছি, সুযোগ তৈরি করেছি আধঘণ্টার মত আমরা বিস্তীর্ণ বল ছুঁড়েছি, এছাড়া আমাদের বোলাররা আজ দুর্দান্ত ছিল এবং হারের জন্য আমি তাদের দায়ী করতে চাই না।’

বোলারদের উপর চাপাননি দায়। তাই বলে এমনও নয় যে ব্যাটসম্যানদের উপর চাপিয়েছেন। বরং ব্যাটিং ব্যর্থতার সিরিজ থেকেও পেইন খুঁজে বের করছেন ভালো দিকগুলো।

তিনি বলেন,

‘এই ম্যাচেও আমরা ব্যাট এবং বল হাতে কিছু ঝলক দেখিয়েছি, যা প্রমাণ করেছে স্কোয়াডে মেধাবীদের অবস্থান। অপ্রত্যাশিত হতাশাজনক একটি সিরিজের পর আমি বিশ্বাস করি, গর্তের (ব্যর্থতা) ওপাশে আলো (সাফল্য) আছে।’

তবে সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার ‘টিম ওয়ার্ক’র স্পষ্ট অভাবটুকু অস্বীকার করছেন না পেইন। সেই সাথে কৃতিত্ব দিচ্ছেন ইংলিশ ক্রিকেটারদেরও- ‘কোনো ক্ষেত্রেই আমরা দলগতভাবে (ভালো) খেলতে পারিনি এবং এই ব্যর্থতা পুরো সিরিজ জুড়েই ছিল। ব্যাট এবং বল হাতে ইংল্যান্ডের ভালো খেলোয়াড়েরা আমাদের চাপে রেখেছেন। ব্যাটিংয়ে আমরা হোঁচট খাচ্ছিলাম যা আজকেও (২৪ জুন) হয়েছে।’

-সিয়াম চৌধুরী

[আরও পড়ুনঃ ৫-০ তে হেরে ৪ রেটিং পয়েন্ট হারাল অস্ট্রেলিয়া]