Scores

গামিনিকে বিসিবির কারণ দর্শানোর নোটিশ

অবশ্যই আমরা ভালো উইকেট চেয়েছিলাম। শুরু থেকেই বলেছি, প্রথম ম্যাচ থেকেই চেয়েছি, হাই-স্কোরিং উইকেটে ব্যাটিং করতে চাই। বোলিংয়ে আমাদের চারজন পেসার আছে, সাকিব ছিল। নাসির খেলেছে, মিরাজ খেলেছে। আমাদের বোলিং ইউনিট শক্তিশালীই ছিল। আমরা সব সময় চেয়েছি ভালো উইকেটে খেলতে। একটা ম্যাচ কেবল শ্রীলঙ্কার সঙ্গে তিনশকরেছিলাম। প্রতি ম্যাচেই অন্তত ২৭০-৮০, তিনশ রানের উইকেটে খেলতে চেয়েছি আমরা।’- শনিবার ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার কাছে হারার পর এভাবেই উইকেট নিয়ে নিজের অভিব্যক্তি বর্ণনা করেছিলেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

গামিনিকে বিসিবির কারণ দর্শানোর নোটিশ

ক্রিকেটের চিরায়ত প্রথা কিংবা ‘অভ্যাস’ অনুযায়ী, স্বাগতিক দল খেলায় একটু বেশি সুবিধা পায়। ম্যাচের উইকেট কেমন হচ্ছে, সেটিও থাকে দলের জানা। এমনকি স্বাগতিক দলের সুবিধা হিসেব করেই বানানো হয় পিচের কন্ডিশন।

Also Read - 'সাকিবের জায়গা পূরণ করা কঠিন'


কিন্তু ফাইনাল ম্যাচের উইকেট দেখে থ বনে গিয়েছিল খোদ বাংলাদেশও। উইকেট এমন ধীর গতির হবে- সেটি জানা ছিল না আগে। এরপর একটি টিভি প্রতিবেদনে জানা যায়, ম্যাচের আগে পিচ কিউরেটর গামিনী ডি সিলভা তার স্বদেশী শ্রীলঙ্কা দলের সাথে বৈঠক করে পাল্টে ফেলেছেন পিচের চিত্র।

জানা যায়, ফাইনালে ব্যাটিং বান্ধব উইকেট চেয়েছিল স্বাগতিক বাংলাদেশ। এ ব্যাপারে বিসিবিকে আশ্বস্তও করেছিলেন শ্রীলঙ্কান বংশোদ্ভূত পিচ কিউরেটর গামিনী ডি সিলভা। ফাইনালের আগের দিন উইকেটে পানি দিতে নিষেধ করা হয়েছিল গামিনীকে। কিন্তু বোর্ডের কথা শোনেননি তিনি। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে ফাইনালের আগে একাডেমী ভবনে দেড় ঘণ্টা হাথুরুসিংহের সাথে গোপন বৈঠক করেছেন তিনি। উইকেটের ব্যাপারে স্পর্শকাতর তথ্য ফাঁস করেছেন শ্রীলঙ্কার কাছে। এমনটিই উঠে এসেছে বেসরকারী টিভি চ্যানেল একাত্তরের বিশেষ এক রিপোর্টে।

এমন কাণ্ডে এবার গামিনিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে বিসিবি। কেন তিনি টিম ম্যানেজমেন্টের অবাধ্য হয়েছেন, সেটি নিয়ে ক্রিকেট অঙ্গনে চলছে জোর আলোচনা।

অবশ্য এই ব্যাপারটিকে আপাতত সহজভাবেই নিচ্ছে বিসিবি। গামিনিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠালেও এ নিয়ে দেশের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনাস্থা কমই! বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘ম্যাচের রেজাল্ট যখন ভালো হয় তখন কিন্তু আর এসব বিষয় নিয়ে কোনো কথা থাকে না। কিন্তু রেজাল্ট যখন কাঙ্খিত না হয় তখন বিভিন্ন রকমের আলোচনা আসে। তো আমি কোনো নির্দিষ্ট বিষয় আলোচনা করব না কথা বলবো না। যদি এই ধরনের কোন বিষয় আমাদের চোখে পড়ে অবশ্যই বোর্ড সেটা দেখে। প্রত্যেকটা বিষয় কিন্তু আমাদের মাথায় আছে। এটা আমাদের মতো করে ইন্টারনালি দেখি।

আরও পড়ুনঃ আবারও তিন ফরম্যাটে এক নম্বর সাকিব

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
Tweet 20
fb-share-icon20

Related Articles

ভেন্যু ভাগ করে দেয়া হয়েছে বিদেশি কিউরেটরদের

চার বিদেশি কিউরেটরকে চার অঞ্চলের দায়িত্ব

দেশি কিউরেটরদের চেয়ে প্রায় ছয়গুণ বেশি বেতন পান গামিনী!