Scores

গিলেস্পি বললেন তার ‘সর্বকালের সেরা টেস্ট ইনিংস’ অনুসরণ করতে

সর্বকালের সেরা টেস্ট ইনিংস

 

শেষবার অর্থাৎ ২০০৬ সালে অস্ট্রেলিয়া যখন বাংলাদেশ সফরে এসেছিল, এক টেস্ট ম্যাচে নাইটওয়াচম্যান হিসেবে ব্যাট করতে নেমে অবিশ্বাস্য এক দ্বিশতক হাঁকিয়েছিলেন অজি পেসার জেসন গিলেস্পি। তার ২০১* রানের ইনিংসে ভর বিশাল জয় পেয়েছিল অস্ট্রেলিয়া।

Also Read - সরে দাঁড়ালেন শ্রীলঙ্কার কোচ গ্রাহাম ফোর্ড


অস্ট্রেলিয়ার আসন্ন বাংলাদেশ সফরের আগে গিলেস্পি তরুণ অজি ব্যাটসম্যানদের পরামর্শ দিলেন চট্টগ্রাম টেস্টের তার সেই ইনিংস থেকে শিক্ষা নিতে। সেই ম্যাচের প্রথম দিনে প্রথম ইনিংসে ১৯৭ রানে অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ। শেষ বিকেলে অস্ট্রেলিয়ার তিন নম্বর ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিজে আসেন গিলেস্পি, এবং তৃতীয় দিন পর্যন্ত ব্যাট করে যান। এবং সেই ম্যাচেই তিনি রেকর্ড গড়ে ফেলেন টেস্টে নাইটওয়াচম্যান হিসেবে ব্যাট করতে নেমে সবচেয়ে বড় ইনিংসটি খেলার।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে দেয়া সাক্ষাৎকারে সেই ইনিংসের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, ‘কি এক অসাধারণ ব্যাটিং ছিল সেটা! তাদের (অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের) উচিৎ ইউটিউবে গিয়ে লেখা টেস্ট ক্রিকেটের সেরা ইনিংস, আর প্রথমেই আসবে আমার সেই অপরাজিত ২০১ রানের ইনিংসটি। তাদের উচিৎ হবে ভিডিওটা ভালো করে দেখা। হাইলাইটসটা মাত্র একও ঘন্টার একটু বেশি। তাদের উচিৎ পুরোটা আয়ত্ত করা, তাহলে তারা শিখতে পারবে বাংলাদেশের মাটিতে কিভাবে ব্যাট করতে হয়। জায়গাটা ব্যাটিং করার জন্য খুবই কঠিন।’

 

গিলেস্পি আরও জানান তার সেই ‘ঐতিহাসিক’ ইনিংস খেলার পেছনের রহস্য, ‘একজন লোয়ার অর্ডারের খেলোয়াড় হিসেবে আমার পরিকল্পনা ছিল খুবই সহজ। আমি শুধু একটা জিনিসই নিশ্চিত করতে চাচ্ছিলাম যেন আমার সামনের প্যাডটা বাইরের দিকে থাকে, যাতে বল সেখানে লেগে যেখান থেকে এসেছিল সেখানে ফিরে যেতে পারে। আর বল যদি উইকেট বরাবর আসে তাহলে সেই বলগুলো আমি খেলছিলাম এবং এমন জায়গায় মারার চেষ্টা করছিলাম যেখানে কোন ফিল্ডার নেই। আমার উদ্দেশ্য ছিল যত সহজে সম্ভব ব্যাট করা।’

 

 

– জান্নাতুল নাঈম পিয়াল, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম ডট কম

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

নতুন ভূমিকায় ওয়াটসন

অস্ট্রেলিয়ার কাছে পাত্তাই পেল না পাকিস্তান

স্টিভ স্মিথকে নিয়ে নতুন বিতর্ক

সহজ জয়ে শ্রীলঙ্কাকে ধবলধোলাই করল অস্ট্রেলিয়া

‘মানসিক চাপে’ ক্রিকেট থেকে অনির্দিষ্টকালের ছুটিতে মাক্সওয়েল