Scores

‘গেম সেন্স’ বাড়ানোয় অধিনায়কের তাগিদ

টেস্ট ক্রিকেটে ওয়ানডের মত এখনও নিজেদের ভালো করে মেলে ধরতে না পারলেও সাম্প্রতিক সময়ে টাইগাররা সাফল্যের দেখা পাচ্ছে। সর্বশেষ চট্টগ্রাম টেস্টে উইন্ডিজের বিপক্ষে স্বাগতিকরা জয় পেয়েছে মাত্র তিন দিনেই।

‘গেম সেন্স’ বাড়ানোয় অধিনায়কের তাগিদ

বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের মতে, দলের সাফল্যের হার বাড়াতে ক্রিকেটারদের ‘গেম সেন্স’ বাড়ানো জরুরি।

সেই গেম সেন্স টার্মটা কেমন? সাকিব জানালেন, একজন আক্রমণাত্মক বোলার যখন সহকর্মী বা সহ-খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্স বিচারে নিজের পারফর্মে ভিন্নতা নিয়ে আসেন, বা পরিস্থিতি বিবেচনায় খেলতে থাকেন, সেটিই গেম সেন্স।

Also Read - বর্ষসেরা হওয়ার সুযোগ তাইজুলের


সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেন, ‘একটা জায়গায় আমাদের উন্নতি করা উচিত- গেম সেন্স থাকা উচিত, কোন পরিস্থিতিতে কেমন খেলতে হবে।’

টাইগারদের স্পিন অ্যাটাককে সাকিব বেশ ভালো মানের বলেই মনে করেন, তবে সেক্ষেত্রে পেতে হয় উইকেটের সহায়তা- মেনে নিয়েছেন অবলীলায়। সাকিব বলেন, আমাদের যে স্পিনাররা আছে সবাই ভালো মানের, বিশেষ করে উইকেটে সাহায্য পেলে। উইকেটে সাহায্য না থাকলে হয়ত আমাদের স্পিনকে এত কার্যকরী মনে হবে না কিন্তু একটু সহায়তা পেলেই আমরা স্পিনাররা অনেক ভালো বোলার।’

ম্যাচের মেজাজ বিচারে স্পিনারদের রক্ষণাত্মক বা রান আটকানোর মত বোলিং করার উপর গুরুত্ব আরোপ করে তিনি বলেন, আমাদের স্পিনাররা সবাই আক্রমণাত্মক বোলার। রক্ষণাত্মক বল করা আমাদের জন্য কঠিন হয়ে যায়। আমরা সবসময় আক্রমণাত্মক বোলিংই করি। এই জিনিসটা আমাদের বুঝতে হবে- কখন রক্ষণাত্মক ভঙ্গিতে খেলতে হবে; ২-৩ ওভার রান দিবো না, একটা সাইডে হয়ত একজন অ্যাটাকিং খেলছে। এই জিনিসগুলো জানাই আমাদের জন্য বেশি ইম্পরট্যান্ট।’

সাকিবের মতে, সব স্পিনাররা আক্রমণাত্মক বল করলে মাঝেমাঝে দলের জন্য সেটি ‘সমস্যা’ হয়ে দাঁড়ায়, চারজনই অ্যাটাকিং বোলার- এটা একদিক থেকে ভালো আবার সমস্যাও। একদিক থেকে যে ডিফেন্সিভ বল হবে সেটা আর হয়ে ওঠে না, দুজনই উইকেট পাওয়ার জন্য খেলে। এতে রান বেরিয়ে যায়।’

তবে দ্রুত উইকেট তুলে নেওয়ার সামর্থ্য খুশি করেছে সাকিবকে। তিনি বলেন, ‘আমাদের চারজন স্পিনার আছে যারা যেকোনো সময়ে এসে উইকেট নিতে পারে, এটা আমাদের জন্য খুবই ভালো।’

আরও পড়ুন: জয়ে পূর্ণতা পেয়েছে সাকিবের ‘২০০’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

কেন টেস্ট ক্রিকেটে দর্শকরা এত অনাগ্রহী?

এমন উইকেটে ব্যাটিং বিপর্যয় হতে পারে!

জয়ে পূর্ণতা পেয়েছে সাকিবের ‘২০০’

উইকেটের শতক কিংবা দ্বিশতক— প্রতিপক্ষ যখন একই!

যাই করি, দলের জন্য: সাকিব