Scores

অনিশ্চয়তায় রিয়াদের বাকি বিশ্বকাপ

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬২ রানের জয় পাওয়ার ম্যাচে বাংলাদেশের জন্য অস্বস্তির খবর হচ্ছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের চোট।  ব্যাটিংয়ের সময় কাফ স্ট্রেইন চোটের কবলে পড়ে পুরো ইনিংসে আর  ফিল্ডিং করতে পারেননি তিনি।

গ্রেড-১ ইনজুরি রিয়াদের

ম্যাচশেষে সংবাদ সম্মেলনে মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানিয়েছিলেন স্ক্যান করানো হবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দলীয় সূত্র থেকে জানা গিয়েছে ডান উরুতে গ্রেড-১ এর চোট পেয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

Also Read - আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন পাকিস্তানের কোচ!


আফগানিস্তানের বিপক্ষে ব্যাটিং করতে গিয়ে এ চোট পান তিনি। মাঠে ফিজিও প্রবেশ করে তাকে প্রাথমিক সেবা দিয়েছিল। সাধারণত এ চোট থেকে সেরে উঠতে এক-দুই সপ্তাহ সময় লাগলেও কতদিন বিশ্রামে থাকতে হবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে তা এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে জানাননি ফিজিও থিলান চন্দ্রমোহন।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ২ চারে সাজানো ৩৮ বলে ২৭ রানের ইনিংস খেলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। চোট নিয়েই করেছিলেন ব্যাটিং। দৌড়ে রান নিতেও সমস্যা হচ্ছিল তার। তবে সেই চোট নিয়েই দৌড়ে তিন  গুলদাবিন নাইবের বলে ধরা পড়েন মোহাম্মদ নবির হাতে। মুশফিকুর রহিমকে সাথে নিয়ে ৫৬ রানের জুটি গড়েন তিনি।  এর আগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৬৯ রানের এক দুর্দান্ত ইনিংস খেলেছিলেন তিনি।

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের বাকি আছে সাতদিন।  আগামী ২ জুলাই ভারতের বিপক্ষে নামবে বাংলাদেশ।  ৫ জুলাই লর্ডসে বাংলাদেশ লড়বে পাকিস্তানের বিপক্ষে।  সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে এক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ বাংলাদেশের। ম্যাচটিতে এ সিনিয়র ক্রিকেটার না খেলতে পারলে সেটি নিঃসন্দেহে বড় এক ধাক্কা হবে বাংলাদেশ দলের জন্য।

প্রথমবারের মত বিডিক্রিকটাইম নিয়ে এলো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। বাংলাদেশ এবং সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বল বাই বল লাইভ স্কোর, এবং সাম্প্রতিক খবর সহ সবকিছু এক মুহূর্তেই পাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অনলাইন পোর্টাল BDCricTime এর অ্যাপে। অ্যাপটি ডাউনলোড করতে গুগল প্লে-স্টোর থেকে সার্চ করুন BDCricTime অথবা ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Related Articles

মঙ্গলবার জানা যাবে রিয়াদের চোটের সর্বশেষ

ভারতের বিপক্ষে সেরাটা ঢেলে দেওয়ার অপেক্ষায় বাংলাদেশ

এভাবেও ফেরা যায়!

উইকেট শিকারীদের প্রথম পাঁচে সাইফউদ্দিন

দক্ষিণ আফ্রিকার সবচেয়ে বাজে সূচনা