ঘরের মাঠের সুবিধা আদায় নিয়ে সমস্যা দেখছেন না সাকিব

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে টি-২০ সিরিজ জিতেছে বাংলাদেশ। মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচগুলো হয়েছে মন্থর ও নীচু উইকেটে। এ উইকেটে মানিয়ে নিতে বেশ ভুগেছে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া। নিজেদের শক্তিমতার কথা চিন্তা করে ঘরের মাঠে পিচ বানানো নিয়ে যারা সমালোচনা করেছেন তাদের এক হাত নিয়েছেন  বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।  

মাশরাফিকে ছাড়িয়ে ওয়ানডের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি সাকিব
মিরপুরের পিচ ছিল স্পিন সহায়ক। বাংলাদেশের মেহেদী, নাসুম, সাকিবদের খেলতে গিয়ে অস্বস্তিতে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরা। এমন মন্থর উইকেটে পেসার মুস্তাফিজুর রহমানও বেশ কার্যকরী। সব মিলিয়ে বাংলাদেশের বোলিং আক্রমণ সামাল দেওয়া এ পিচে অস্ট্রেলিয়ার জন্য ছিল ভীষণ কঠিন এক কাজ। 

এমন পিচ তৈরি নিয়ে সমালোচনা করেছেন অনেকেই। তাদের নিয়ে দৈনিক পত্রিকা প্রথম আলোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে  সাকিব আল হাসান বলেন, “এগুলো তারাই বলে যাদের মনের ভেতরটা শুধু হিংসায় ভরা। তারা বাংলাদেশের অর্জনকে ঈর্ষা করে। ঘরের মাঠে কে নিতে চাইবে না নিজেদের কন্ডিশনের সুবিধা? কোন দল নেয় না সেটা?”

Advertisment

আগামী মাসে শুরু হতে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজের সব ম্যাচই আয়োজিত হবে মিরপুরে। সেখানেও দেখা যেতে পারে মন্থর উইকেট।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে এ সফরে আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপের স্কোয়াডের কেউ আসবেন না। তবে এ নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছেন না সাকিব। তাদের পূর্ণ শক্তির দলের বিরুদ্ধে খেলতে না পারাটা হতাশাজনক হলেও সাকিব মনে করেন এটি নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ডের ব্যাপার। ।

সাকিব বলেন, “একটু হতাশাজনক তো বটেই। তবে এটাতে আমাদের কিছু করার নেই। এটা ওদের বোর্ডের ব্যাপার, ওদের খেলোয়াড়দের ব্যাপার। আমরা জানি, আমরা নিউজিল্যান্ডের সঙ্গেই খেলতে যাচ্ছি। ওদের বিপক্ষে যতটা ভালো খেলা যায় খেলব। দিন শেষে খেলা হচ্ছে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে বাংলাদেশের। কোনো খেলোয়াড়ের সঙ্গে খেলোয়াড়ের খেলা হচ্ছে না।”