ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিকতার প্রতীক বিজয়

0
7222
ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিকতার প্রতীক বিজয়

টানা সাত জয় নিয়ে ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগে এগিয়ে যাচ্ছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। এ জয়ে ভূমিকা রাখছেন দলের ক্রিকেটাররা। তাদের মধ্যে ব্যাট হাতে এনামুল হক বিজয়ের নাম অন্যতম। দলের হয়ে করেছেন ৭ ইনিংসে ৫২.৪২ গড়ে সর্বোচ্চ ৩৬৭ রান।

সেই সুবাদে লীগের সেরা ব্যাটসম্যানদের তালিকাতে অবস্থান এখন পর্যন্ত তৃতীয়। তবে ভাগ্য বরাবরের মতো তার সঙ্গে খেলা করছে লীগেও। দুটি ম্যাচে আউট হয়েছেন নার্ভাস নাইটটিজে। আবাহনীর বিপক্ষে ৯৭ ও সর্বোশেষ ব্রাদার্সের বিপক্ষে ৯৩ রানে আউট হন তিনি।

Advertisment

এনসিএলেও দেখা গেছে মাইলফলকের সামনে গিয়ে আউট হতে। হয়েও যেন হচ্ছে না। জাতীয় দলেও তার অবস্থা ছিল একি রকম। ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর দল থেকে বাদ পড়ে আর ফেরা হয়নি। সে বছরই তাকে শেষ দেখা গেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। ফর্মহীনতার সঙ্গে এই উইকেটরকক্ষ ব্যাটসম্যানের বিপক্ষে অভিযোগ আত্মকেন্দ্রিক ব্যাটিং।

টেকনিক ও ফুট ওয়ার্ক নিয়ে সমালোচনা কম নয়। এ নিয়ে বিজয়ের হতাশাও কম ছিল না। হতাশা কাটিয়ে এখন লড়াই করে যাচ্ছেন নিজেকে ফিরে পেতে। তাই পেছনে ফিসফাস শুনে বিচলিত হন না। শুধু প্রতিদিনই অপেক্ষায় আছেন জাতীয় দলে ডাকের।

তবে জাতীয় দলে ডাক না পেলেও সম্প্রতি খেলে এসেছেন পাকিস্তান সুপার লিগ- পিএসএলে। সেখানে কোয়েটার হয়ে ফাইনালে খেলতে দেখা যায় তাকে। এছাড়া ছিলেন এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ- আইপিএলের নিলামের চূড়ান্ত তালিকায়। তবে দুর্ভাগ্যবশত জাতীয় দলের অপর সতীর্থদের মতো তিনিও সুযোগ পাননি কোন দলে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে তিরিশটি এক দিনের ম্যাচ খেলেছেন এনামুল হক বিজয়। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে ৯৫০ রান করেছেন তিনি, এতে রয়েছে তিনটি শতক ও তিনটি অর্ধ শতকের মার।

  • মাকসুদুল হক, প্রতিবেদক, বিডিক্রিকটাইম।