চার দশক আগের স্মৃতির পুনরাবৃত্তি করল ভারত

0
149

তরুণ স্কোয়াড নিয়েই শ্রীলঙ্কা সফরে গেছে ভারত। তবে প্রথম দুই ম্যাচের একাদশে পুরানো মুখই ছিল ৯ জন। সিরিজ জয় নিশ্চিত করার পরেই শেষ ম্যাচে একবারে ৫ জনকে অভিষেক করিয়ে চার দশক আগের স্মৃতি স্মরণ করাল দলটি।

চার দশক আগের স্মৃতির পুনরাবৃত্তি করল ভারত
কৃষ্ণাপ্পা গৌতম, নিতিশ রানা, রাহুল চাহার, সঞ্জু স্যামসন ও চেতন সাকারিয়া (বাম থেকে)

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে ভারতীয় একাদশে ওডিআই অভিষেক হলো ৫ জন ক্রিকেটারের। তারা হলেন, ব্যাটসম্যান নিতিশ রানা ও সঞ্জু স্যামসন, অলরাউন্ডার কৃষ্ণাপ্পা গৌতম, বোলার রাহুল চাহার ও চেতন সাকারিয়া। ১৯৮০ সালের পর এই দ্বিতীয়বার ওয়ানডে ক্রিকেটে একসাথে ৫ ক্রিকেটারের অভিষেক করাল ভারত।

Advertisment

১৯৮০ সালের ডিসেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এই সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ভারত। মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে সেবার একসাথে অভিষেক হওয়া পাঁচ ক্রিকেটার হলেন, দিলিপ দোশি, কীর্তি আজাদ, রজার বিনি, সন্দ্বীপ পাতিল ও তিরুমালাই শ্রীনিবাসন। এই ঘটনার পরে আর ভারতের একাদশে এত সংখ্যক ক্রিকেটারকে একসাথে অভিষেক হতে দেখা যায়নি।

শ্রীলঙ্কা সফরে শিখর ধাওয়ানের নেতৃত্বাধীন এই স্কোয়াড তরুণদের নিয়েই গঠিত। তাদের মূল দল ইংল্যান্ড সফরে থাকায় এবার সুযোগ মিলেছে তরুণদের। সিরিজের প্রথম ম্যাচেও অভিষেক হয়েছিল দুই জনের, ইশান কিষাণ ও সূর্যকুমার যাদব। আজকের (তৃতীয়) ম্যাচের একাদশে সূর্য থাকলেও বাদ পড়েছেন কিষাণ।

ইতোমধ্যে সিরিজের প্রথম দুইটি ম্যাচই জিতে ফুরফুরে মেজাজে আছে ভারত। তাই আগের ম্যাচের জয়ের নায়ক দীপক চাহারকেও আজ বিশ্রাম দিয়েছে তারা। নিজেদের বেঞ্চের শক্তি পরখ দেখতে কিংবা সেই শক্তির জানান দিতেই ৫ জনকে একসাথে অভিষেক করানো হয়েছে।

ভারতের এই তরুণ স্কোয়াড নিয়ে কিছুদিন আগেই বীরেন্দর শেবাগ মন্তব্য করেছিলেন যে ভারতের হাতে এত বেশি প্রতিভা আছে যে তাদেরকে এক দলে ঠাঁই দেওয়া সম্ভব হয় না। তারই প্রমাণ এখন পাওয়া যাচ্ছে ২২ গজে।